Press "Enter" to skip to content

ভিন ধর্মে বিয়ে হারাম, কম বয়সে মেয়েদের নিকাহ করান! ফতোয়া ‘মুসলিম ল বোর্ড”-এর

নয়া ঃ অল (All India ) বুধবার আন্তধর্মীয় বিয়ের বিরুদ্ধে বয়ান জারি করে যুবকদের মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যেই বিয়ে করার আবেদন জানিয়েছে। AIMPLB এর মতে, মুসলিম আর অ-মুসলিমদের মধ্যে বিয়ে শরীয়ত আইন অনুযায়ী ইসলামে হারাম। এছাড়াও ের দিক থেকেও এটি ভুল।

AIMPLB এর কার্যবাহ মহাসচিব মৌলানা খালিদ সৈফুল্লাহ রহমানি মুসলিম যুবক আর তাঁদের মা-বাবার কাছে এই বিষয়ে আবেদন জানিয়েছেন। AIMPLB প্রেস নোট জারি করে অ-মুসলিমদের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া হারাম আখ্যা দিয়ে বলেছেন যে, কোনও মুসলিম যদি অ-মুসলিমকে বিয়ে করে তাহলে সে আজীবন ভুল পথে চলবে।

AIMPLB অনুযায়ী, অভিভাবকরা তাঁদের সন্তানদের ঠিক মতো শিক্ষা দেয় না বলেই মুসলিমরা ধর্মের বাইরে বিয়ে করে। পাশাপাশি বোর্ড ধার্মিক নেতা আর মুসলিম সন্তান্তদের অভিভাবকের কাছে নিজের বাচ্চাদের অন্য ধর্মে বিয়ে না দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে। একটি বয়ানে বোর্ড জানিয়েছে যে, এরকম অনেক ঘটনা সামনে এসেছে যেখানে মুসলিম মেয়েরা অ-মুসলিম যুবকদের বিয়ে করেছে আর পরে তাঁদের করুণ পরিণতি হয়েছে। মৌলানা সৈফুল্লাহ ইসলামিক নেতাদের অন্য ধর্মে বিয়ে করার ক্ষতি নিয়ে অবগত করিয়েছেন আর এর বিরুদ্ধে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

বোর্ড মুসলিম অভিভাবকদের সন্তানের ফোনে নজর রাখা আর তাঁদের গতিবিধি ট্র্যাক করার পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি মেয়েদের কো-এড স্কুলের বদলে মেয়েদের স্কুলেই পড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে। বোর্ড বলেছে, অভিভাবকরা দায়িত্ব নিয়ে মেয়েদের এটা বোঝাক যে, একমাত্র মুসলিম ছেলেরাই তাঁদের জীবনসঙ্গী হতে পারবে, অন্য কোনও ধর্মের ছেলেরা নয়।

বোর্ড জানায়, যখন মুসলিম যুবক-যুবতীরা রেজিস্ট্রি অফিসে গিয়ে বিয়ে করলে, তাঁদের নামের একটি জারি হয়। ধার্মিক সংগঠন, শিক্ষক আর মুসলিম সম্প্রদায়ের গুরুত্বপূর্ণ মানুষদের উচিৎ বিয়ে করা ওই যুবক-যুবতীদের বোঝানো যে, এরকম ভাবে বিয়ে করলে জীবন হারাম হয়ে যাবে। বোর্ড মুসলিম অভিভাবকদের তাঁদের সন্তানদের কম বয়সেই বিয়ে করিয়ে দেওয়ার ওকালতি করেছে। বিশেষ করে মেয়েদের কম বয়সে বিয়ে করিয়ে দেওয়ার নিদান দিয়েছে বোর্ড। তাঁদের মতে, বিয়ে করাতে দেরী হলেই মেয়েরা অন্য ধর্মের যুবকের প্রেমে আবদ্ধ হয়ে যায়।