Press "Enter" to skip to content

ভয়াবহ অবস্থা পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুদের! কান্নায় ভেঙে পড়লেন অভিনেত্রী পায়েল রোহাতগি



রবিবার ২ তারিখ মমতা ার্জীর পার্টি তৃণমূল কংগ্রেস জয়লাভ করার পর থেকে রাজ্যজুড়ে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। অনেক বলেছেন বাংলায় যা ঘটেছে তা ১৯৪৬ সালের ক্যালকাটা কিলিং এর স্মৃতি উস্কে দিচ্ছে।
বহু বিজেপি কর্মীর বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেওয়ার খবর সামনে এসেছে। একই সাথে বেশকিছু মৃত্যু সাথে ধর্ষণের অভিযোগও সামনে এসেছে। লক্ষণীয়, বিজেপি নেতারা এই হিংসার বিরোধিতা করে ধর্ণায় বসেছেন। যদিও বেশিরভাগ শুভচিন্তক মানুষের দাবি, ধর্নায় বসে কোনো লাভ নেই বরং কড়া পদক্ষেপের প্রয়োজন রয়েছে।

পায়েল রোহাতাগি পশ্চিমবঙ্গে ছড়িয়ে পড়া অশান্তি নিয়ে মুখর হয়েছে। অভিনেত্রীর এক ভাইরাল হয়েছে যেখানে উনাকে বাংলার ী ফলাফল বেরোনোর পরের অবস্থা নিয়ে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে। পায়েল রোহাতাগি বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে যা হচ্ছে তা চোখে দেখ যাচ্ছে না। যেভাবে হিন্দু বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দিচ্ছে, খুন, ধর্ষন হচ্ছে তা মেনে নেবার নয়।

শুধু এই নয় পায়েল রোহাতাগি বলেন, মোদী অমিত শাহ কেন ব্যবস্থা নিচ্ছেন ন। কর্মীরা তো আপনাদের পার্টির জন্যেই লড়াই করতো। বাংলার হিন্দুদের উপর অত্যাচারের কথা তোলার জন্য কঙ্গনা রানাউতের একাউন্ট ডিলেট করে দেওয়া হয়েছে। সেই বিষয়েও মুখ খোলেন পায়েল রোহাতাগি।

প্রসঙ্গত, বাংলা থেকে বহু বিজেপি কর্মী পলায়ন করে অসমে গেছে। বহু হিন্দু পরিবার বাড়ি ঘর ছেড়ে অন্যত্র পালিয়েছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

এ বিষয়ে বিজ্ঞাপনলোভী মিডিয়া কথা বলতে একেবারে নারাজ। সোশ্যাল মিডিয়ায় দেশের হিন্দুরা বাংলায় লাগু করার দাবি জানিয়েছেন।