Press "Enter" to skip to content

মন্ত্রীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ মমতা ব্যানার্জীর, আসল খবর সামনে আসতেই ঘুম উড়ল সবার


কলকাতাঃ রাজ্যের মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরার () মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী () এবং রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের তফ থেকে। জানাজানি হতেই এলো অন্য খবর। মন্ত্রী তো দিব্বি বেঁচে আছেন। এরপর ভুল বুঝতে পেরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এবং তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ শোকবার্তা মুছে ফেলেন। এদিনের এই ঘটনায় জোর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সবার প্রশ্ন একটাই, একজন মন্ত্রীর মৃত্যু নিয়ে কীভাবে এমন ভুল বার্তা যেতে পারে?

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সুন্দরবন উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। ওনাকে চিকিৎসার জন্য বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভরতি করানো হয়েছিল। মন্ত্রীর পরিবারের থেকে জানা যায় যে, তিনি গতকাল মঙ্গলবার রাতে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর ওনাকে তড়িঘড়ি কাকদ্বীপের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ওনার করোনার পরীক্ষা করানো হলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এরপর মন্ত্রীকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ট্র্যান্সফার করা হয়।

কিন্তু আজ বুধবার হঠাৎই খবর ছড়িয়ে পড়ে যে, মন্টুরাম পাখিরা আর নেই। এরপর রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর থেকেও ওনার মৃত্যু নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। শোক প্রকাশ করা হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর তরফ থেকেও। তিনিও মন্টুরাম পাখিরার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন, এবং মন্ত্রী পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। কিন্তু আসল খবর সামনে আসতেই চক্ষু ছানাবড়া। মন্ত্রীতো দিব্বি সুস্থ এবং বহাল তবিয়তে আছেন। আসল খবর সামনে আসতেই শোকবার্তা মুছে ফেলা হয় রাজ্যের দপ্তর থেকে।

এই অনিচ্ছাকৃত ভুল নিয়ে রাজ্যে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। সবার প্রশ্ন হল, একজন মন্ত্রীকে নিয়ে রাজ্যের তরফ থেকে কীভাবে এমন ভুল তথ্য ছড়ানো হয়? সবার প্রশ্নে আপাতত মুখে কুলুপ এঁটেছে রাজ্য।