Press "Enter" to skip to content

মরেছে তাতে কি? বলা যাবেনা করোনায় মরেছে! নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্য সরকারের


কলকাতাঃ মমতা ব্যানার্জীর (Mamata Banerjee) সরকারের বিরুদ্ধে প্রমাণ নিয়ে বোমা ফাটালেন কংগ্রেসের সাংসদ অধীর চৌধুরী (Adhir Chowdhury)। তিনি বলেন, সরকার নতুন ফরমান জারি করেছে, যেখানে করোনায় মৃত্যু হলেও ডেথ সার্টিফিকেটে করোনায় মৃত্যু লেখা যাবেনা। উনি এই নিয়ে একটি চিঠিও সামনে এনেছেন। শুধু উনিই না, বিজেপির সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়ও এই ফরমান নিয়ে মুখ খোলেন। এমনকি তিনি এর বিরুদ্ধে কোর্টে যাওয়ারও হুমকি দিয়েছেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

উল্লেখ্য, রাজ্যে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা এবং মৃতের সংখ্যা লুকানোর অভিযোগ নিয়ে বরাবরই বিরোধী দল গুলো মমতা ব্যানার্জীকে আক্রমণ করে এসেছে। এমনকি রাজ্যে করোনার পরীক্ষার সংখ্যাও কম হচ্ছে বলে বরাবরই অভিযোগ করে এসেছে বিরোধীরা। এই নিয়ে প্রতিবাদে নেমে গ্রেফতার হয়েছিল বাম নেতারা।

অধীর চৌধুরী একটি নির্দেশিকার কথা উল্লেখ করে বলেন, রাজ্য সরকার থেকে ফরমান জারি করা হয়েছে যে, করোনায় মৃত্যু হলেও কোন মতেই করোনার কথা উল্লেখ করা যাবে না। বরঞ্চ মৃত্যুর কারণ হিসেবে স্বাভাবিক কারণ দেখাতে হবে। সম্প্রতি মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজে এসে পৌঁছেছে ওই নির্দেশিকা। আর সেই নির্দেশিকাকে হাতিয়ার করে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন অধীর চৌধুরী।

প্রথমের দিকে রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা জানিয়েছিল সরকার দ্বারা গঠিত চিকিৎসকদের কমিটি। কিন্তু, সেই সংখ্যা কমাতে তড়িঘড়ি একটি প্রেস কনফারেন্স ডাকা হয় রাজ্যের মুখ্য সচিব। সেখানে বলা হয়েছিল, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলে আগেই বলা যাবে না যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে। তাঁর আগে খতিয়ে দেখতে হবে যে, ওই রোগীর অন্য কোন রোগ ছিল কি না? এরপর থেকেই রাজ্যের করোনা মৃত্যুর সংখ্যা প্রেস কনফারেন্স করে জানাতে থাকেন মুখ্য সচিব।