Press "Enter" to skip to content

মসজিদের গুম্বজ ভেঙে তৈরি করা হচ্ছে শপিং কমপ্লেক্স! মুসলিমদের উপর চীনের ব্যাপক উপদ্রব


বিগত কয়েক বছরে চীনের সরকার উইঘুর প্রান্তে থাকা মুসলিমদের উপর অ’ত্যাচার বাড়িয়ে দিয়েছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে চীনের প্রশাসন উইঘুর মুসলিমদের অনেক ধার্মিক স্থান ভেঙে দিয়েছে। সম্প্রতি জিনজিয়াং প্রান্তে এক পুরানো মসজিদকে চীনের প্রশাসন ভেঙে ফেলেছিল। মসজিদ ভেঙে ওই স্থানে টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী পবিত্র মসজিদকে মল, মূত্র ত্যাগের স্থানে রূপান্তরিত করা হয়েছে।

ওই সময় উইগুর নেবারহুড কমিটির চীফ বলেছিলেন, সমস্ত বাড়িতে আগে থেকেই টয়লেট থাকা সত্ত্বেও প্রশাসন এটা করেছে। এখন চীনের চীনের ইঞ্চুয়ান প্রদেশ থেকে এক খবর সামনে আসছে যেখনে মসজিদের গুম্বজ উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। চীনের ইঞ্চুয়ান প্রদেশে থাকা বড়ো মসজিদের আরবি শৈলীতে নির্মিত গুম্বজকে ভেঙে ফেলা হয়েছে।

এক অভিযান শুরু করে চীনের প্রশাসন এই কার্য শুরু করেছে বলে জানা গেছে। মসজিদের ভেতরে থাকা ইসলামিক লিপি, বিভিন্ন রং মুছে ফেলা হয়েছে। এক কথায় মসজিদকে এক অন্য রূপ দেওয়া হয়েছে। জ ছবিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। স্থানীয় মুলসিমরা এই মসজিদকে নাঙ্গুয়ান মসজিদ বলতেন। অনেক দাবি করেছেন যে চীন এই মসজিদকে শপিং কমলেক্সে রূপান্তরিত করেছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

ের এই বিষয়ে টুইট করেছেন।
ব্রিটেনের বিদেশমন্ত্রী লিখেছেন, চীন ধার্মিক আস্থার উপর লাগাতার আঘাত হানছে যা অনুচিত। অবশ্য চীনের সরকার সমস্ত রকম অভিযোগ থেকে নিজেদের বার বার সরিয়ে নেয়। চীন দাবি করে যে তারা এলাকা স্বচ্ছ করছে। প্রসঙ্গত চিনে উইঘুর মুসলিমদের কোরান পড়া, দড়ি রাখা ইত্যাদি নানা ধার্মিক রীতি রেওয়াজেও নিষেধাজ্ঞা লাগিয়ে রেখছে চীনের প্রশাসন।