Press "Enter" to skip to content

মহিলাদের গোপনাঙ্গে হাত দেয় BSF! তুমুল বিতর্কিত মন্তব্য তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ’র


কলকাতাঃ বাংলা (West Bengal) সহ দেশের বিভিন্ন রাজ্যে সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর () এক্তিয়ার বৃদ্ধি করেছে কেন্দ্র। এখন থেকে বিএসএফ রাজ্যের ৫০ কিমি ভিতরে ঢুকে তল্লাশি, পাকড়াও অভিযান চালাতে পারবে। আর কেন্দ্রের এই নীতির বিরুদ্ধেই ফুঁসছে সব অবিজেপি শাসিত রাজ্য। বাদ যায়নি পশ্চিমবঙ্গও। আর বিএসএফের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রতিবাদে এদিন বিধানসভায় প্রস্তাবও পেশ করেছিল । সেই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনাতেই তৃণমূল ও ির মধ্যে তুমুল সংঘাতের সৃষ্টি হয়, যার জেরে বিধানসভায় তুলকালাম বেঁধে যায়।

বিধানসভায় শীতকালীন অধিবেশনে BSF-কেই কাঠগড়ায় তোলে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। ততৃণমূলের নবনির্বাচিত বিধায়ক উদয়ন গুহ এদিন অভিযোগ করে বলেন, BSF তল্লাশির নাম করে মহিলাদের গোপনাঙ্গে হাত দেয়। দিনহাটার বিধায়কের এই মন্তব্যের তুমুল বিরোধিতা করে বিজেপি। পাশাপাশি তৃণমূলের বরহানগরের বিধায়ক তাপস রায় BSF-কে নৃশংস বলেও আখ্যা দেন।

উদয়ন গুহ এদিন বলেন, ‘যারা BSF-র অত্যচার চোখে দেখেনি, তাঁরা কোনোদিনও বিশ্ করতে পারবে না। BSF-র ক্ষমতা বাড়িয়ে দ্বৈত শাসন আনার চেষ্টা করছে বিজেপি।” তিনি বলেন, ‘সীমান্তবর্তী এলাকায় যারা থাকেন, তাঁদের জিজ্ঞাসা করুন, BSF কী সেটা বুঝে যাবেন। সন্তানদের সামনে BSF তল্লাশি করার নামে তাঁর মায়ের গোপনাঙ্গে পর্যন্ত হাত দিয়ে দেয়।”

পাল্টা বিজেপির বিধায়করা বলেন, কেন BSF-এর এত বিরোধিতা করা হচ্ছে? কাউকে কি সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার জন্যই এত হম্বিতম্বি? বিজেপির বিধায়কটা পাল্টা যুক্তি দিয়ে বলেন, এলাকায় গরুর হাট বসছে, অনুপ্রবেশকারীদের রমরমা চলছে। রাজ্য পুলিশকে BSF-র তরফ থেকে এসব নিয়ে জানানো হলেও, তাঁরা পদক্ষেপ নেয় না।