Press "Enter" to skip to content

মাদ্রাসার পড়ুয়াদের তালিবানি বললেন মহামণ্ডলেশ্বর স্বামী যতীন্দ্রানন্দ, সরকারের কাছে বন্ধ করার দাবি

সম্ভলঃ উত্তর প্রদেশের সম্ভলের জুনা আখড়ার মহামণ্ডলেশ্বর স্বামী যতীন্দ্রানন্দ গিরি বিতর্কিত বয়ান দিয়ে শিরোনামে উঠে এসেছেন। উনি বলেছেন, তবলীগ মাদ্রাসা থেকে জন্ম নিয়েছে এরজন্য মাদ্রাসায় পড়াশোনা করা বাচ্চারা তালিবানি। গিরি জানিয়েছেন, ের উচিৎ সমস্ত ধার্মিক মাদ্রাসা বন্ধ করে দিয়ে সেগুলিকে সরকারি শিক্ষা যোজনার অন্তর্গত স্কুলে রূপান্তরিত করা।

যতীন্দ্রানন্দ গিরি জানিয়েছেন, মাদ্রাসা থেকে তাবলীগের জন্ম এরজন্য মাদ্রাসায় পড়া সমস্ত বাচ্চারা তালিবানি। উনি সমস্ত মাদ্রাসা বন্ধ করে সরকারি স্কুল গড়ার দাবি জানিয়েছেন সরকারের কাছে। বলে দিই, স্বামী যতীন্দ্রানন্দ গিরি মঙ্গলবার উত্তর প্রদেশের সম্ভলে বিজেপি নেতা কপিল সিঙ্ঘলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। আর সেই সময়ই তিনি এই বয়ান দিয়েছিলেন।

যতীন্দ্রানন্দ গিরি সম্ভলের সমাজবাদী পার্টির সাংসদ শফিকুর রহমান বর্ককেও আক্রমণ করেছেন। উনি বলেছেন, ‘বর্ক দেশকে ভাগ করার প্রচেষ্টায় লেগে পড়েছে। উনি তিরঙ্গা, কিছুই পছন্দ করেন না। উনি মাতার জয়গানও করেন না। সপা সাংসদ বর্ক তালিবানের সমর্থনে বয়ান দিয়েছিলেন, কিন্তু ী আদিত্যনাথের ভয়ে সেই বয়ান নিয়ে সাফাই দিয়েছেন।”

উল্লেখ্য, সমাজবাদী পার্টির সাংসদ শফিকুর রহমান বর্ক আফগানিস্তানে তালিবানের জয়কে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। উনি বলেছিলেন, ভারত যেমন ভাবে সংগ্ করে ইংরেজদের থেকে স্বাধীনতা পেয়েছিল, তালিবানও তেমন ভাবেই সংগ্রাম করে স্বাধীনতা অর্জন করেছে।

যদিও, ওনার এই বয়ানের পর রাজ্যের শাসক দল নেতারা চরম ক্ষুব্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে সাংসদ নিজের বয়ান ফেরত নিয়েছিলেন। অন্যদিকে ওনার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও দায়ের হয়েছিল।