Press "Enter" to skip to content

মানতে হবে নির্দেশ! মসজিদের মিনার, গুম্বজ ভাঙার অভিযান চালাচ্ছে চীন


নয়া দিল্লিঃ শিনজিয়াং প্রান্তে মুসলিমদের উপর নির্যাতনের পর চীন () এবার চীনা মুসলিমদের (Chinese Muslims) বিরুদ্ধে আরও একটি বড় অভিযান শুরু করেছে। এবার চীনে থাকা মসজিদের উপরের গুম্বজ আর মিনার ভাঙার অভিযান চালিয়েছে প্রশাসন। চীনের শাসকদের মতে, ওই মসজিদ গুলোতে ি আরব ঐতিহ্যর ঝলক রয়েছে, এই কারণে গুম্বজ আর মিনার ভাঙার দরকার।

https://platform.twitter.com/widgets.js

NPR ওয়েবসাইট অনুযায়ী, চীন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে লাগাতার মুসলিমদের উপর নির্যাতন চালিয়েই যাচ্ছে। এবার দেশের সবথেকে বড় প্রান্ত হেনানে (Henan) হুই মুসলিমদের (Hui ) উপর নির্যাতন শুরু করেছে চীন । হেনানের মোট জনসংখ্যা প্রায় ১১ কোটি। আর সেখানে মুসলিমদের সংখ্যাও অনেক। সেখানকার মুসলিমরাও বাকি দেশের মতো তাঁদের মসজিদে উঁচু উঁচু মিনার আর বিভিন্ন রঙের গুম্বজ বানিয়ে রেখেছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

চীনের সাংস্কৃতিক মন্ত্রক দেশকে এক করার নামে ওই মসজিদের উপর থেকে গুম্বজ আর মিনার ভাঙার কাজ শুরু করেছে। তবে চীন সরকার এই কাজ নিজে করছে না, তাঁরা মসজিদ কর্তৃপক্ষকে চাপ দিয়ে তাঁদের দিয়েই এই কাজ করাচ্ছে। এরফলে বিশ্বের কেউই মসজিদের উপর থেকে মিনার আর গুম্বজ ভাঙার দায় চীন সরকারের উপর ফেলতে পারবে না। রিপোর্ট অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত অজস্র মসজিদ থেকে মিনার আর গুম্বজ ভেঙে ফেলেছে চীন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

রিপোর্ট অনুযায়ী, চীনের লাগাতার চাপের কারণে হুই মুসলিমরা এখন ইসলামের চীনা ভার্সন আপন করে নিয়েছে। এর মানে এই যে, তাঁরা এখন ইসলামের সেই আয়াত আর হাদিস পড়বে যেটা চীন দ্বারা স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কোরআনে লেখা রয়েছে। হুই মুসলিমরা কনফুসিয়াস আর মাওবাদ ও আপন করে নিয়েছে। তাঁরা এখন চীনের ‘হান বংশ”-র মানুষদের মতোই নিজেদের ধার্মিক অনুষ্ঠানে ধুপকাঠি জ্বালায়।