Press "Enter" to skip to content

মানুষ মেরে এবার ব্যাবসা শুরু! রোজ কোটি কোটি টাকার টেস্ট কীট ও ওষুধ বিক্রি করছে চীন, মিলছে বহু অর্ডার


অনেকে মানুষ মারার ব্যাবসা সম্পর্কে জানেন না, তবে আমাদের নিয়মিত পাঠকদের অবশ্যই এই সম্পর্কে সামান্য কিছু ধারণা রয়েছে। কারণ India Rag আগেও এই ধরণের ব্যাবসা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করেছে। সংক্ষিপ্তভাবে বোঝানোর চেষ্টা করলে, ভারতে বেশকিছু বিদেশী কোম্পানি রয়েছে যারা ভারতে কোল্ড ড্রিঙ্কস, রাসায়নিক সার ও ধূমপান জাতীয় দ্রব্যের বিক্রি করে। এইভাবে তারা ভারত থেকে কোটি কোটি টাকা লুটপাট করে। এরপর এই সমস্থ লাগাতার খাওয়ার পর ব্যাক্তি ক্যান্সারের মতো জটিল রোগের শিকার হয়। এখন এই রোগের ওষুধ কিনতে ভারতকে বিদেশের উপরেই নির্ভর করতে হয়। এইভাবে বিদেশী কোম্পানিগুলি ভারত থেকে প্রতি মাসে বহু টাকার ব্যাবসা তুলে নেয়। এখন চীনও মানুষ মারার ব্যবসায় নেমে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠছে।

আসলে ের উহান থেকে ভাইরাস ছড়িয়ে পুরো বিশ্বে লকডাউন পরিস্থিতি উৎপন্ন হয়েছে। অবশ্য ের বেজিং, সাংহাই খুব সুন্দরভাবে পরিচালিত হচ্ছে, সেখানে কোনো আতঙ্ক নেই। উহান শহরকেও ৮ এপ্রিল খুলে দেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে দিল্লী, মুম্বাই, কলকাতা সহ পুরো ভারত লকডাউন। শুধু এই নিজ পুরো ইউরোপ এখন আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। সবথেকে খারাপ অবস্থা ইতালি ও স্পেনের।

এখন চীন () স্পেনকে ওষুধ বিক্রি করে তার মানুষ মারার ব্যাবসা শুরু করে দিয়েছে। চীন নানা জায়গায় সংবাদ মাধ্যমকে কিনে ফেলেছে। ভারতেও চীনের দালালি করা লোকজন বড় সংখ্যায় দেখা মিলছে। চীন প্রোপাগান্ডা চালিয়েছে যে তারা করোনার উপর কাবু পেতে সমর্থ, আর তাই তারা এই ভাইরাস উৎপন্নের জন্য দায়ী নয়। এখন চীন সমস্থ বিশ্বের অসহায়তার সুযোগে জমিয়ে ব্যাবসা শুরু করেছে এবং ভালো মুনাফা অর্জন করছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

স্পেন চীন থেকে এখন টেস্ট কিট ও ওষুধ কিনতে শুরু করেছে। বর্তমানে স্পেনের অবস্থা খুবই খারাপ তাই স্পেন বাধ্য হয়ে নিজের জনগণকে বাঁচাতে ওষুধ কিনতে শুরু করেছে। তবে এখন সবে ব্যবসার শুরু ধীরে ধীরে এই ব্যাবসা আরো বড়ো হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্পেন চীনের থেকে ৪৩২ মিলিয়ন ইউরোর ওষুধ ও কিট কিনেছে। অর্থাৎ একটা মোটা টাকার ব্যাবসা এক ধাক্কায় শুরু করে ফেলেছে চীন। স্পেন ছাড়াও ইতালি সহ বেশকিছু দেশ চীনের কাছে কিট ও ওষুধের অর্ডার দিয়েছে।