Press "Enter" to skip to content

মীরাবাঈয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের ছবি ভাইরাল হতেই ট্রোল্ড সালমান খান! হরিণছাপ পোশাক নিয়ে শুরু হাসিঠাট্টা

টোকিও ে (Tokyo Olympics) ভারোত্তোলনে (Weightlifting) ৪৯ কেজি বিভাগে রুপো জিতে দেশবাসীকে গর্বিত ও মুগ্ধ করেছেন মণিপুরের মেয়ে মীরাবাঈ চানু (Mirabai Chanu)। তাঁকে নিয়ে দেশবাসীর উন্মাদনার অন্ত নেই। কিন্তু মীরাবাঈয়ের সঙ্গে দেখা করেই ট্রোলড হলেন সলমন খান। বিতর্কের শিরোনামে উঠে এল খানের পোশাক।

মীরাবাঈয়ের সঙ্গে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে সলমনের পরনে একটি কালো-টিশার্ট। গলায় এক ঘিয়ে রঙের উত্তরীয়।ওই উত্তরীয়র একেবারে শেষ অংশে চোখ আটকেছে নেটিজেনদের একাংশের। সেখানে রয়েছে একটি হরিণের ছবি আর ভাইজানের সঙ্গে হরিণ- নতুন ঘটনা নয়।

১৯৯৮ সালে হাম সাথ সাথ হ্যায় শ্যুটিংয়ের হময় সলমনের উপর কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের অভিযোগ উঠেছিল। যোধপুরের কঙ্গনি গ্রামে কালো হরিণ শিকারের অভিযোগ উঠেছিল ভাইজানের বিরুদ্ধে।২০১৮ সালের ৫ এপ্রিল যোধপুরের জেলা আদালতের প্রধান পাঁচ বছরের কারাের শাস্তি প্রদান করেছিলেন ভাইজানকে, সঙ্গে ছিল জরিমানাও। যদিও সেশন আদালতে রায় খারিজ হয় এবং জামিনে মুক্তি মেলে তাঁর। গত বছর সেপ্টেম্বর মাস নাগাদ সলমনকে আবার তলব করা হয়েছিল আদালতের পক্ষ থেকে এবং সেই মামলা এখনও চলছে।

আর নেটিজেনরা সলমনের উত্তরীয় হরিণের ছবি দেখে হাসাহাসি শুরু করেছেন। কেউ কেউ লিখেছেন, “এটাই তো আয়রনি”।

https://platform.twitter.com/widgets.js

একজন লিখেছেন ‘ডিয়ার এবং সালমান খান স্বর্গের জুটি।’ আরেক জন সোশ্যাল মিডিয়ায় ইউজার লিখেছেন, সালমান খান ও হরিণের বন্ধুত্ব খুবই পুরানো

https://platform.twitter.com/widgets.js

তবে, সলমন যে উত্তরীয় পরেছিলেন সেখানে কৃষ্ণসার নয় সাঙ্ হরিণ ছিল। সাঙ্গাই হরিণ মণিপুরে দেখতে পাওয়া যায়। তবুও ট্রোল যেন নাছোড়বান্দা। আর সলমনের প্রতিক্রিয়া? না, ট্রোল নিয়ে এখনও মুখে একটিও শব্দ খরচ করেননি তিনি।