Press "Enter" to skip to content

মুকুলের মতো বেইমানির করছে না রাজীব, বিজেপিতে চিঠি দিয়ে ফুলবদলের জল্পনায় কার্যত জল ঢাললেন তিনি


কলকাতাঃ একুশের ের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা ডোমজুড়ের বিধায়ক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee)। কিন্তু নির্বাচনে আরও অনেক দলবদলকারী নেতার মতনই পরাজয় সহ্য করতে হয়েছিল তাকেও। ডোমজুড়ের মানুষ দেননি রায় দেননি তার পক্ষে। আর তারপর থেকেই একটু একটু করে বেসুরো হতে শুরু করেন রাজীব। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যেই দলের সমালোচনায় মুখর হন তিনি।

নিজের ফেসবুক পোস্টে পরিষ্কার লেখেন, ৩৫৬ ধারা জুজু বারবার দেখালে মানুষ ভালোভাবে নেবে না। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর বেসুরো মানেই আবার দল বদলের চিন্তা, এমনটাই ধরে নিয়েছিল অনেকে। যার জেরে অন্দরে শুরু হয় বিক্ষোভও। ডোমজুড়ের অনেক তৃণমূল কর্মীও রাস্তায় নেমে কার্যত বিক্ষোভ দেখান রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

এবার এই জল্পনার অবসান করলেন রাজীব নিজেই। নির্বাচনের পর থেকেই মোটামুটি ভাবে নিষ্ক্রিয় ছিলেন তিনি। দলীয় বৈঠকেও তাকে অনুপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে বারবার। কিন্তু এবার ফের একবার সক্রিয় হয়ে উঠলেন রাজীব। পরপর জোড়া চিঠি পাঠালেন রাজ্য নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে। বিজেপি সূত্রে খবর, একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে বিজেপির সহ-সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে। এই চিঠিতে রয়েছে বেশ কিছু নামের । ভোট-পরবর্তী হিংসার জেরে, অনেক বিজেপি কর্মী এখনও ঘরছাড়া। ডোমজুড়ে ঘরছাড়া সেই বিজেপি কর্মীদেরই তালিকা প্রতাপবাবুর কাছে পাঠিয়েছেন রাজীব।

অন্য চিঠিটি পাঠানো হয়েছে সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তীকে(Amitabha Chakraborty)। মুখ বন্ধ এই চিঠির বিষয়ে অবশ্য প্রকাশ্যে আসেনি। তবে প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঘরছাড়া কর্মীদের ঘরে ফেরানোর জন্য উদ্যোগ নিতে অনুরোধ করেছেন রাজীব। আর যার জেরে অনেকেই মনে করছেন, রাজীবের আপাতত ফুল বদলের সম্ভবনা এখন উড়িয়ে দেওয়া যায়।

একথা ঠিক যে অনেকেই কার্যত কাতর আবেদন জানালেও এতদিনে তৃণমূলের কাছে কোন চিঠি লেখেননি রাজীব। আর সেই সূত্র ধরে, নিরাশার মধ্যেও একটুখানি আশার আলো দেখছিল বিজেপি। এবার সেই আশার প্রদীপ শিক্ষা আরও খানিকটা উজ্জল হল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।