Press "Enter" to skip to content

মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে পারেন উদ্ধব ঠাকরে, মহারাষ্ট্রে রাজনৈতিক অস্থিরতা

[ad_1]

মুম্বইঃ মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের (Uddhav Thackeray) শারীরিক অবস্থা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি হয়েছে। আর এরই মধ্যে মহারাষ্ট্রের বিজেপির সভাপতি চন্দ্রকান্ত পাতিল (Chandrakant Patil) বড় বয়ান দিয়েছেন। উনি দাবি করেছেন যে, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে নিজের শারীরিক অবস্থার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কুরসি ছেড়ে অন্য কাউকে দিতে পারেন।

মহারাষ্ট্রের বিজেপি সভাপতি চন্দ্রকান্ত পাতিল বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে বিধানসভার অধিবেশন চালানো উচিৎ নয়। উদ্ধব ঠাকরেকে নিজের শরীর ঠিক হওয়া পর্যন্ত অন্য কাউকে মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করতে দেওয়া উচিৎ। এসব নিয়ে জেদ করে বসে থাকলে হয় না।

চন্দ্রকান্ত পাতিল বলেন, শারীরিক অসুস্থতার কারণে উদ্ধব ঠাকরে মুখ্যমন্ত্রীর কুরসি ছাড়তে পারেন আর মহারাষ্ট্র নতুন মুখ্যমন্ত্রী পেতে পারে। উনি বলেন, রশ্মি ঠাকরে (উদ্ধব ঠাকরের স্ত্রী) অথবা আদিত্য ঠাকরে আগামী মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন।

বলে দিই, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সম্প্রতি স্পাইন সার্জারি করিয়েছিলন। আর এই কারণেই তিনি এখন কাজ থেকে দূরে রয়েছেন। উদ্ধব ঠাকরে বিগত কিছুদিন ধরে ঘাড়ের ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছিলেন। আর এই কারণে ওনাকে অনেক সমস্যার সম্মুখীনও হতে হয়। ৬১ বছর বয়সী উদ্ধব ঠাকরে ঘাড়ে ব্যথা নিয়ে ডাক্তারদের পরামর্শ মতো ১০ নভেম্বর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ১ নভেম্বর অনারর সার্জারি হয়।

Uddhav Thackeray

অন্যদিকে, বিজেপি নেতার দাবি খারিজ করে দিয়েছেন উদ্ধব পুত্র আদিত্য ঠাকরে। তিনি জানিয়েছেন যে, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সুস্থ আছেন, আর খুব শীঘ্রই তিনি কাজে ফিরবেন।

[ad_2]