Press "Enter" to skip to content

মুখ্যমন্ত্রী পদে টিকে থাকার জন্য কেন্দ্রের বিরোধিতা করেন না নবীন পট্টনায়ক: দেবাংশু ভট্টাচার্য, তৃণমূল মুখপাত্র


ইয়াসের পর পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যা দুই রাজ্যে রিভিউ মিটিংয়ে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। তবে রিভিউড মিটিংয়ে দুই রাজ্যে ভিন্ন বুনন ছবি দেখা গেছে। একদিকে উড়িষ্যায় মিটিংয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী । অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে রিভিউ মিটিংয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী ার্জী। যা নিয়ে বেশ তোলপাড় শুরু হয় দেশের রাজনৈতিক মহলে। অনেকে এই ঘটনাকে মমতা ব্যানার্জীর ঔদ্ধত্যপূর্ন আচরণ বলে নিন্দা জানিয়েছে।

শুধু এই নয়, নবীন পট্টনায়ক বলেন যে, প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে এসেছেন এটাই অনেক। এখন ঝড়ের ক্ষতির মোকাবিলা করার জন্য ক্ষতিপূরণ প্রয়োজন নেই। এমনিতেই কেন্দ্র করোনা ভাইরাসের কারণে চাপে রয়েছে। অন্যদিক প্রধানমন্ত্রী মোদীর কাছে ২০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চান মমতা ব্যানার্জী।

আর এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। একদিকে কিছুজন নবীন পট্টনায়ক এর বক্তব্যের সমর্থন জানিয়েছেন। অন্যদিকে তৃণমূল সমর্থকরা নবীন পট্টনায়কের আচরকে নাটক বলে আখ্যা দিয়েছেন। তৃণমূল মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেছেন, নবীন পট্টনায়ক নোটবন্দি, GST, কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো ইস্যুতেই বিরোধিতা করেননি। চুপচাপ বসে থাকে নিজের রাজ্যে আর ভোটের আগে িকে বলে প্লিজ বেশি জোর লাগাবেন না।

দেবাংশু আরো বলেন, “উনি শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রী থাকার জন্য এইসব কাজ গুলি করেন। উনি কেন্দ্র সরকারকে চটাতে চান না। তবে মমতা ব্যানার্জী লড়াই করেন আপনাদের জন্য। নোটবন্দিতে আপনি ঘন্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে ছিলেন, মমতা ব্যানার্জী আপনার জন্য লড়াই করেছিল।