Press "Enter" to skip to content

মুসলিম পড়ুয়াদের বড়ো উপহার দেবে মহারাষ্ট্র সরকার, দেওয়া হবে ৫% সংরক্ষণ

মহারাষ্ট্রের সরকারী স্কুল ও কলেজগুলিতে মুসলিমদের জন্য ৫% সংরক্ষণকে সবুজ সংকেত দিল উদ্ধব ঠাকরে ও কংগ্রেসের মিলিত সরকার। NCP এর জাতীয় মুখপাত্র এবং মহারাষ্ট্রের সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী নবাব মালিক জানিয়েছেন এটি খুব তাড়াতাড়ি বিধানসভা দ্বারা পাস হবে। মহারাষ্ট্রের NCP কোটা থেকে আসা মন্ত্রী নবাব মালিক বলেন যে বিষয়টি হাইকোর্টে যাওয়ার পরে সরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঁচ শতাংশ রিজার্ভেশন প্রদান উচিত। কিন্তু বিগত সরকার সে বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। সদস্যরা দাবি করেছেন যে সংরক্ষণ দেওয়া উচিত। আমরা ঘোষণা করেছি যে উচ্চ আদালত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে সংরক্ষণ দেওয়ার স্বীকৃতি দিয়েছে এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এটি করা হবে।

কংগ্রেস বিধায়ক জিশান সিদ্দিকী সরকারের সিদ্ধান্তকে ন্যায়সঙ্গত বলে উল্লেখকরেছেন। তিনি বলেন এটি যুবসমাজের মধ্যে ভাল শিক্ষা প্রদান করতে সাহায্য করবে। আরও কর্মসংস্থানের সুযোগগুলিও সঠিক উপায়ে পাওয়া যাবে। অন দিকে বিজেপির রাম কদম বলেছিলেন – ধর্মের নামে সংরক্ষণ দেওয়া যায় না। এই ঘোষণাটি একটি রাজনৈতিক স্টান্ট ছাড়া আর কিছুই নয়।

এদিকে, শিবসেনার অবস্থান স্পষ্ট করতে মন্ত্রী অনিল পরব এগিয়ে এসেছিলেন। তিনি বলেন- মুসলিম রিজার্ভেশনের প্রসঙ্গে যা সিধান্ত নেওয়া হয়েছে সেখানে শিবসেনা সমর্থনে রয়েছে ।

প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, ২০১৮ সালে মহারাষ্ট্র বিধানসভায় আলোচনার সময় শিবসেনা মুসলমানদের ৫ শতাংশ রিজার্ভেশন দেওয়ার পক্ষে ছিল। মুখ্যমন্ত্রী পৃথ্বীরাজ চবনের নেতৃত্বাধীন তৎকালীন কংগ্রেস-এনসিপি সরকার মুসলমানদের জন্য ৫ শতাংশ এবং মারাঠাদের জন্য ১ শতাংশ সংরক্ষণের ঘোষণা করেছিল। তবে বোম্বাই হাইকোর্ট কেবলমাত্র শিক্ষায় মুসলমানদের ৫ শতাংশ সংরক্ষণে স্থগিত করেছিলেন।