Press "Enter" to skip to content

মৃত্যুর মুখে ফেলে রেখে যাবেন না, আমাদের বাঁচান! বিশ্বের কাছে আবেদন আফগান ক্রিকেটারের


নয়া দিল্লীঃ এই মুহূর্তে রীতিমতো সংকটে কাবুলিওয়ালার দেশ । মার্কিন সৈন্যবল সরতে গোটা দেশজুড়ে রীতিমতো সক্রিয় হয়ে উঠেছে তালিা। সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী দেশের প্রায় ৮০ শতাংশই দখল করে নিয়েছে তারা। শুধু তাই নয়, ইউএনএইচসিআরের মতে, গত মাসে, আফগানিস্তানে ৩৫০০০ এরও বেশি পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়েছে। নির্বিচারে হত্যা করা হচ্ছে মহিলা এবং শিশুদের। ইউনিসেফের প্রতিনিধি হার্ভে লুডোভিচ এক বিবৃতিতে বলেছেন, গত ৭২ ঘণ্টায় আফগানিস্তানে ২০ জন শিশু মারা গেছে এবং আহত হয়েছে প্রায় ১৩০ জন।

সব মিলিয়ে দেশের পরিস্থিতি যে মারাত্মক সঙ্কটজনক তা বলাই বাহুল্য। আফগান সেনারা ক্রমাগত লড়াই চালিয়ে গেলেও ধীরে ধীরে রাজধানীর দিকে এগিয়ে আসছে তালিবান। ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের বাধ্য করা হচ্ছে হাতে অস্ত্র তুলে নিতে। ইতিমধ্যেই উপকণ্ঠের সমস্ত এলাকা দখল করে নিয়েছে তালিবানি গোষ্ঠী। নির্বিচারে চলছে অত্যাচার। এই অবস্থায় থেমে থাকতে পারেননি আফগানিস্তানের অন্যতম তারকা লেগ স্পিনার রশিদ খান। আইপিএল, পিএসএল, বিপিএল, বিগ ব্যাশ লিগ সহ বিভিন্ন দেশের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টগুলিতেই ভীষণ জনপ্রিয় তিনি।

দেশের এই কঠিন অবস্থার রীতিমতো উদ্বিগ্ন পড়েছে এই আফগান তারকাকেও। আর তাই সারা বিশ্বের জননেতাদের কাছে আজ আবেগী আবেদন রাখলেন তিনি। আজ টুইট করে এই তারকা লেখেন, “বিশ্বের প্রিয় জননেতারা, আমার দেশ বিপদে পড়েছে। শিশু ও মহিলাসহ হাজার হাজার নিরীহ মানুষ প্রতিদিন শহীদ হচ্ছে, ঘরবাড়ি এবং সম্পত্তি ধ্বংস হচ্ছে। হামলার কারণে হাজার হাজার পরিবার ঘর ছাড়া হয়ে পড়েছে। আমাদের এই যন্ত্রণার মধ্যে রেখে যাবেন না। আফগানদের হত্যা বন্ধ করুন এবং আফগানিস্তানকে ধ্বংস করবেন না। আমরা শান্তি চাই।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

আফগানিস্তানের প্রতি মুহূর্তে আরও বেশি ধ্বংসাত্মক হয়ে উঠছে তালিবান। তাদের অত্যাচারের হাত থেকে মুক্ত রেহাই পাননি নারী-শিশু কেউই। আর তাই সংকটজনক মুহূর্তে সারা বিশ্বের কাছে আবেগী আবেদন জানালেন রশিদ। ক্রিকেটের কারণে সারা বিশ্বে জনপ্রিয় তিনি। এখন তার মাতৃভূমি সংকটজনক পরিস্থিতিতে, এই মুহূর্তে কি থেমে থাকা যায়? যায়না। সেই কারণেই নিজের মতো করে সাহায্যের আবেদন জানালেন রশিদ।