Press "Enter" to skip to content

মোদীই সেরা, সবাইকে ছাপিয়ে টুইটারে ৭০ মিলিয়ন ফলোয়ার্স হল প্রধানমন্ত্রীর

নয়া দিল্লীঃ ফের এক বড়সড় কীর্তি স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী (Narendra Modi)। মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে (Twitter) ওনার ফলোয়ার সংখ্যা ৭ কোটি ছাড়িয়ে গেল। বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকটিভ থাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রোজই বেড়ে চলেছিল ওনার ফলোয়ার সংখ্যা, আর এবার তা ছাড়িয়ে গেল ৭ কোটি। খেলোয়াড়দের উৎসাহ দেওয়া থেকে শুরু করে তথা ের সমস্ত কিছু বিষয়ে টুইট করে থাকেন তিনি।

https://platform.twitter.com/widgets.js

শুধু ভারতেই ওনার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে তা নয়, ভারতের বাইরে বিভিন্ন দেশেও ওনাকে অগণিত মানুষ ভালোবাসেন। আর এই কারণেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হোক আর আরব দেশ, তিনি যেখানেই যান, সেখানেই ওনাকে দেখার জন্য হাজার হাজার মানুষ জড় হয়।

টোকিও অলিম্পিকে দেশের খেলোয়াড়দের শুভেচ্ছা জানানো হোক, আর যেকোন উৎসবই হোক, উনি সবসময় টুইট করে জনগণকে শুভেচ্ছা জানান। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওনার এত সক্রিয় থাকার কারণেই জনপ্রিয়তাও দিন দিন বাড়তে থাকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তার তুলনায় দেশে অন্যান্য বিরোধী দলের নেতারা অনেক পিছিয়ে রয়েছেন। রাহুল গান্ধীদের মতো দেশের অন্যতম বিরোধী নেতা টুইটার তথা সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় থাকলেও তাঁদের জনপ্রিয়তা অনেক কম।

টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা এতটাই বেড়ে গিয়েছিল যে, কয়েক মাস আগে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ভবন ‘হোয়াইট হাউস”-এর টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও ওনাকে ফলো করা হয়েছিল। যদিও, কিছুদিন পরে আবার আনফলো করে দেওয়া হয়। বলে দিই, হোয়াইট হাউসের আধিকারিক টুইটার হ্যান্ডেল থেকে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ব্যাতিত অন্য কোনও নেতাকে ফলো করা হয়না। তবে সেবার তাঁরা প্রথা ভেঙে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফলো করেছিল।