Press "Enter" to skip to content

মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ PK, দিলেন তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়ানোর মতো বয়ান

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishor) আরও একবার কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন। প্রশান্ত কিশোর বলেন, কংগ্রেসে কোনও গণতন্ত্র নেই। উনি এও বলেন যে, যদি দলকে বাঁচাতে হয়, তাহলে গান্ধী পরিবারের বাইরে কোনও নেতাকে গণতান্ত্রিক ভাবে দলের সভাপতি বাছা হোক।প্রশান্ত কিশোর বলেন, দেশের সবথেকে পুরনো পার্টি কংগ্রেস ছাড়া বিজেপি বিরোধী মোর্চা গড়া সম্ভব।

একটি বেসরকারি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় প্রশান্ত কিশোর কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধীকে আক্রমণ করে বলেন, ট্যুইট আর ক্যান্ডেল মার্চ করে বিজেপিকে হারানো সম্ভব নয়। বিজেপি অনেক শক্তিশালী হয়ে গিয়েছে। নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন বিজেপিকে হারাতে শক্তিশালী রণনীতি তৈরি করতে হবে। প্রশান্ত কিশোর বলেন, ১৯৮৪ সালের পর কংগ্রেস একার ক্ষমতায় কোনও লোকসভা নির্বাচনে জয় হাসিল করতে পারেনি। বিগত ১০ বছরে কংগ্রেস ৯০ শতাংশ নির্বাচনে হারের মুখ দেখেছে। কংগ্রেস নেতৃত্বকে এই হারের দায় স্বীকার করতে হবে।

প্রশান্ত কিশোর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রশংসা করে বলেন, উনি সবার কথা শোনেন। আর এটাই ওনার সবথেকে বড় শক্তি। উনি জানেন, মানুষ কী চায়। প্রশান্ত কিশোর এও বলেন যে, আগামী কয়েক দশক পর্যন্ত বিজেপিকে নিয়েই রাষ্ট্রীয় রাজনীতি চলবে। পিকের এই বয়ানে তৃণমূলের অস্বস্তি যে বাড়তে চলেছে, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

প্রশান্ত কিশোর ট্যুইট করে লেখেন, “একটি শক্তিশালী বিরোধীদের জন্য কংগ্রেস যে চিন্তাভাবনা এবং বিশদ প্রতিনিধিত্ব করে তা গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু বিরোধীদের নেতৃত্ব কংগ্রেসের ঐশ্বরিক অধিকার নয়, বিশেষ করে যখন দলটি গত ১০ বছরে ৯০% নির্বাচনে হেরে গিয়েছে। বিরোধী নেতৃত্বকে গণতান্ত্রিকভাবে সিদ্ধান্ত নিতে দিন।”

[ad_2]