Press "Enter" to skip to content

মোদীর ফটোশপ করা ছবি ছড়িয়ে চর্চায় আসা জহর সরকারকে রাজ্যসভায় মনোনীত করল তৃণমূল


কলকাতাঃ ের আগে তৃণমূল (All India Trinamool Congress) ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ তথা প্রাক্তন রেল মন্ত্রী দীনেশ ত্রিবেদী। তিনি নিজের রাজ্যসভার সদস্য পদ থেকেও ইস্তফা দিয়েছিলেন। ওনার ইস্তফার পর ওই আসনটি খালি হয়ে যায়।

কিছুদিন আগেই নির্বাচন কমিশন দীনেশ ত্রিবেদীর ছেড়ে যাওয়ার আসনে করানোর জন্য ৯ আগস্ট দিনটিকে নির্ধারণ করে। জল্পনা ছড়িয়েছিল যে, ওই আসনে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশবন্ত সিনহাকে প্রার্থী করতে পারে তৃণমূল। এরপরে এটাও শোনা গিয়েছিল যে, প্রাক্তন নেতা তথা কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায়কেও ওই আসনে প্রার্থী করতে পারে তৃণমূল।

তবে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ওই আসনের জন্য প্রার্থীর নাম ঘোষণা করল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। সফরের আগেই ওই আসনের জন্য প্রসার ীর প্রাক্তন অধিকর্তা জহর সরকারকে (Jawhar Sircar) মনোনীত করলেন বন্দ্যোপাধ্যায়।

অবসরপ্রাপ্ত আইএএস অফিসার জহর সরকারের সঙ্গে তৃণমূলের সম্পর্ক আগাগোড়াই মধুর। আলাপন ইস্যুতে কেন্দ্রের সমালোচনা করে রাজ্যের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যসচিবকে দিল্লী তলব করার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে পাগল বলে কটাক্ষও করেছিলেন তিনি। এখন তাঁকেই বড় পদ দিয়ে সম্মানিত করতে চলেছে তৃণমূল।

https://platform.twitter.com/widgets.js

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে জহর সরকার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর একটি ফটোশপ করা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে শিরোনামে এসেছিলেন। তিনি ওই ছবিতে নরেন্দ্র মোদীকে নীতা আম্বানির সামনে হাত জোড় করে দাঁড়িয়ে আছে দেখিয়েছিলেন, যদিও আসল কাহিনী হল বর্তমান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনকে সম্মান জানাতে প্রধানমন্ত্রী হাতজোড় করেছিলেন।