Press "Enter" to skip to content

মোদীর সঙ্গে লড়াই করার মতো কোনও মুখ নেই, হারানো মুশকিলঃ শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত

মুম্বাইঃ একদিকে ভোট কুশলী (Prashant Kishor) বিরোধীদের একজোট করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। আরেকদিকে, (Shiv Sena) বারবার ির প্রশংসা করে চলেছে। আর এবার শিবসেনার তথা মুখপাত্র (Sanjay Raut) আরও একটি বড় বয়ান দিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন। রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় রাউত বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সঙ্গে লড়াই করার মতো বিরোধী শিবিরে কোনও মুখ নেই। যতক্ষণ না কোনও মুখ আসছে, ততক্ষণ কোনও সুযোগ নেই।

যদিও, শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত এটাও বলেন যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মোকাবিলায় এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার সবথেকে বড় চেহারা। সঞ্জয় রাউত বলেন, ২০২৪ সালে কোনও বড় মুখ ছাড়া নরেন্দ্র মোদীকে হারানো মুশকিল। হতে পারে শরদ পাওয়ার এর বিকল্প হয়ে উঠবেন।

শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত বলেন, নিঃসন্দেহে একজন বড় ি নেতা। কিন্তু ওনার থেকেও অনেক বড় নেতা রয়েছে। সঞ্জয় রাউত বলেন, কংগ্রেসে এখনও নেতৃত্বের অভাব রয়েছে, এই কারণেই তাঁরা এখনও দলের সভাপতি নির্বাচিত করতে পারছে না।

প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে সঞ্জয় রাউত বলেন, বলেছে যে, পিকে বাংলায় ভালো কাজ করেছে। তৃণমূল আর প্রশান্ত কিশোরের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছিল। সঞ্জয় রাউত বলেন, মহারাষ্ট্রেও প্রশান্ত কিশোর আমাদের সঙ্গে কিছু কাজ করেছিল।

আমি জানিনা উনি কী করতে চাইছেন, তবে তিনি দেশের বিরোধী দলগুলিকে একসঙ্গে নিয়ে আসার জন্য বড় ভূমিকা পালন করতে পারেন। যদি কোনও অরাজনৈতিক নেতা এরকম কাজ করে, তাহলে সবাই সেটিকে গুরুত্ব দেয়। সঞ্জয় রাউত বলেন, নরেন্দ্র মোদীর নামই যথেষ্ট। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা কিছুটা কমেছে। কিন্তু উনি মোদী, আজও উনি দেশের সবথেকে বড় নেতা।

উল্লেখ্য, একদিন আগেই শিবসেনার মুখপত্র সামনাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের প্রশংসা করা হয়। কেন্দ্র সরকার সমবায় মন্ত্রক আলাদা করে গঠিত করে অমিত শাহকে সেই মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়ায় খুশি শিবসেনা। তাঁদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, অমিত শাহ নিঃসন্দেহে ভালো কাজ করবেন। আর ওনাকে নিয়ে যারা দোষারোপ করছে, তাঁরা ভুল করছে।