Press "Enter" to skip to content

মৌলানাদের চাপে মাথা নত করল পাকিস্তানের ইমরান সরকার! রমজানে মসজিদে নামাজ পড়ার দেওয়া হল অনুমতি


ওয়েবডেস্কঃ  ের সঙ্কটের মধ্যে মৌলানাদের চাপে মাথা নত করে ের (Pakistan) (Imran Khan) সরকার শনিবার রমজানের (Ramadan) পবিত্র মাসে মসজিদ গুলোতে সার্বজনীন নামাজ পড়ার অনুমতি দিয়ে দিলো। উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের কারণে এখনো পর্যন্ত গোটা বিশ্বে ১ লক্ষ ৫৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ডঃ আরিফ আলভী ধার্মিক নেতা আর সমস্ত প্রান্তের রাজনৈতিক প্রতিনিধিদের সাথে একটি বৈঠক করার পর এই ঘোষণা করেন। আলভী বলেন, এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ সমঝোতা আর সমস্ত ধর্মগুরুদের সাথে সহমত হয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মৌলবীরা মসজিদে নামাজ পড়ার সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং সরকারের দিশা নির্দেশ পালন করায় সহমত প্রকাশ করেছে।

চুক্তি অনুযায়ী, ৫০ বছরের উর্ধে মানুষ, নাবালক আর জ্বরে আক্রান্তদের মসজিদে প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবেনা। বিশেষ মসজিদ ছাড়া রাস্তা, ফুটপাথ আর অন্য জায়গায় আয়োজন করা যাবেনা। এই চুক্তি অনুযায়ী, মসজিদের সমস্ত কালীন (মোটা চাদর) সরিয়ে দিতে হবে এবং মসজিদের মেঝেতে কীটাণুনাশক দিয়ে পরিস্কার করতে হবে। নামাজ পড়ার সময় ছয় ফুটের দূরত্ব বজায় রাখতে হবে আর সবাইকে পরতেই হবে। এবং সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল হাত মেলানো আর আলিঙ্গন করা যাবেনা।

আলভী বলেন, যদি সরকার দেখে এক ফোঁটাও নির্দেশ লঙ্ঘন হচ্ছে, অথবা এই ভাইরাস আরও ছড়িয়ে পড়ছে তাহলে পুনরায় মসজিদে নামাজ পড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে বিচার করা হবে। পাকিস্তানের ধার্মিক মামলায় মন্ত্রী নুরুল হোক কাদরি সমস্ত মৌলবিদের কাছে করোনা ভাইরাসের এই মহামারীর ইস্যুকে গম্ভীর ভাবে নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছেন। উনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, যদি রোগী আর মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পায় তাহলে তাদের দায়ি করা হবে।

উল্লেখ্য, করোনার ভাইরাসের মামলা বৃদ্ধি পাওয়ার পরেও পাকিস্তান সরকার মসজিদে নামাজ পড়া বন্ধ করতে ব্যর্থ হয়েছে। এখনো দেশের অনেক মসজিদেই নামাজ পড়া হচ্ছে কোনরকম নিয়ম না পালন করেই। পাকিস্তানে শনিবার করোনা ভাইরাসের মামলা বৃদ্ধি পেয়ে ৭ হাজার ৫০০ হয়ে গেছে। এবং এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখনো পর্যন্ত ১৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।