Press "Enter" to skip to content

‘ম্যাঙ্গো ডিপ্লোম্যাসি’ চালু করেছিল পাক সরকার! উপহার ফিরিয়ে দিল চীন আমেরিকা


ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই ইমরান খান পাকিস্তানের নাগরিকদের ‘নয়া পাকিস্তান’ বা ‘নতুন পাকিস্তান’ গড়ার স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন। তবে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে পাকিস্তানের যেভাবে অবনতি হয়েছে তা পাক অর্থনীতিকে কঙ্কালে পরিণত করেছে। শুধু এই নয়, করোনা থেকে শুরু করে জম্মু ের ইস্যুতে বিতর্কিত ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করে পাকিস্তান নিজের নাক কাটিয়েছে।

পাকিস্তানের আর্থিক অবস্থা দুর্বল হয়ে পড়ায় কোনো দেশ তাদের ঋণ দিতে রাজি নয়। এমতো অবস্থায় পাক সরকার ইমরান খান ‘ম্যাঙ্গো ডিপ্লোম্যাসি’ কর্মসূচি চালু করেছে। বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলিকে খুশি করতে পাকিস্তান ‘ম্যাঙ্গো ডিপ্লোম্যাসি’ কে অস্ত্র বানিয়েছে। অবশ্য এই পরিপেক্ষিতেও পাকিস্তানের সরকারের মুখে কালি লেগেছে।

পাকিস্তান যেসব দেশকে উপহার হিসেবে আম পাঠিয়েছে তাদের মধ্যে ৩২ টি দেশ উপহার ফিরিয়ে দিয়েছে। যে সমস্ত দেশ আম ফিরিয়ে দিয়েছে তাদের মধ্যে আমেরিকার নাম সবার উপরে রয়েছে। এমনকি পাকিস্তানের সবথেকে প্রিয় বন্ধু চীন অবধি আম ফিরিয়ে দিয়েছে। , নেপাল, শ্রীলঙ্কাও এই উপহার (আম) ফিরিয়ে দিয়েছে।

কানাডার মতো দেশ করোনার দোহাই দিয়ে পাকিস্তানের দেওয়া উপহার ফেরত দিয়েছে। উপহার ফিরিয়ে দেওয়ার কারণ হিসেবে তারা করোনা ের নানা গাইডলাইন উল্লেখ করেছে। , , , বাংলাদেশের মতো বেশকিছু দেশে পাকিস্তান আম পাঠাবে বলে জানা গেছে।

বহু দেশ পাকিস্তানের উপহার ফেরত দেওয়ার কারণে আন্তর্জাতিক মহলে আরো একবার পাকিস্তানে নাক কাটা পড়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন ইমরান সরকার কূটনৈতিক অর্থে যে ‘ম্যাঙ্গো ডিপ্লোম্যাসি’ চালু করেছিল তা ব্যার্থ হয়েছে। প্রাপ্ত অনুযায়ী, বুধবার দিন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রক ৩২ টি দেশে আম পাঠিয়েছিল।