Press "Enter" to skip to content

যত কাণ্ড বাংলায়! ফের ভুয়ো টিকা ক্যাম্পের পর্দাফাঁস, অভিযুক্ত স্বাস্থ্য দফতরের কর্মী


ভুয়ো অফিসার দেবাঞ্জন কাণ্ডের রেশ কাটতে না কাটতেই রাজ্যে ফের ভুয়ো ক্যাম্প চালানোর ঘটনা সামনে এল। সোনারপুরের রূপনগরে ভুয়ো ভ্যাকসিন ক্যাম্প চালিয়ে গ্রেফতার হল এক স্্থ্যকর্মী। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, গ্রেফতার হওয়া স্বাস্থ্যকর্মীর নাম মিঠুন মণ্ডল। সে ডায়মন্ড হারবারের পঞ্চগ্রাম প্রাইমারি হেলথ সেন্টারের ফার্মাসিস্ট।

মিঠুন ১৫ হাজার টাকার চাকরি ছেড়ে সোনারপুরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের ভ্যাকসিন সেন্টারে কোঅর্ডিনেটর হিসেবে কাজ করে। সেই টিকাকেন্দ্র থেকেই রোজই কোভিশিল্ডের ভায়েল সরিয়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে মিঠুনের বিরুদ্ধে। সরিয়ে ফেলা টিকা নিয়ে সে আবার নিজের থেকেই ক্যাম্প চালাত। কখনও বাড়ি বাড়ি গিয়ে, আবার কখনও গ্রামে ক্যাম্প বসিয়ে নিজেই টিকাকরণ করত মিঠুন।

জানা গিয়েছে যে, গত মাসে ৩০ থেকে ৪০ জনকে টাকার বিনিময়ে ভ্যাকসিন দিয়েছিল মিঠুন। কারও থেকে ৩০০, আবার কারও থেকে ৪০০ টাকাও নিচ্ছিল সে। সবকিছুই ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু, যারা টিকা নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে বেসজ কয়েকজন মেসেজ না পাওয়ায় সন্দেহ তৈরি হয়েছিল। এরপরই তাঁরা থানায় বিষয়টি জানান।

অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ তদন্তে নেমে জানতে পারে যে, স্থানীয় এজেন্টের হাত ধরে বেআইনি টিকাকরণ চালাচ্ছিল মিঠুন। এরপরই শুক্রবার রাতে তাঁকে রুপনগর থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মিঠুনের থেকে যারা টিকা নিয়েছে, তাঁদের তালিকা তৈরি করছে পুলিশ। পাশাপাশি মিঠুনের দেওয়া টিকাগুলি আসল কী না, সেটাও পরীক্ষা করা হবে।