Press "Enter" to skip to content

যেই এয়ারবেস থেকে বালাকোটে রুদ্ররূপ দেখিয়েছিল ভারতীয় সেনা, সেখানেই মোতায়েন হবে রাফাল

নয়া দিল্লীঃ অধীর আগ্রহে ভারত (India) যেই দিনের অপেক্ষায় ছিল, অবশেষে সেই সময় চলে এলো। ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ে বিশ্বের সবথেকে অত্যাধুনিক রাফাল ফাইটার জেট (Dassault Rafale) ভারতের মাটিতে থাকবে। রাফাল বিমান গুলোকে আম্বালা এয়ারফোর্স স্টেশনে (Ambala Airforce Station) মোতায়েন করা হবে। আপনাদের জানিয়ে দিই, এই আম্বালা এয়ার বেস থেকেই দেশের ইতিহাসের অনেক বড় বড় লড়াই লড়া হয়েছিল, আর জয়ের ধ্বজা ওড়ানো হয়েছিল।

জানিয়ে দিই, আম্বালা এয়ারবেস ভারতীয় বায়ুসেনার পশ্চিম এয়ার কম্যান্ডের অধীনে আসে। ১৯৬৫ হোক আর ১৯৭১ কারগিলে পাকিস্তানের তরফ থেকে করা ষড়যন্ত্র হোক আর বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক। যখনই শত্রুদের উপর প্রহার করার দরকার পড়েছে, তখনই আম্বালা এয়ারবেস থেকে ভারতীয় বায়ুসেনার বিমান উড়ে গিয়ে শত্রু পক্ষকে ধ্বস্ত করে দিয়ে এসেছে।

ভারত স্বাধীন হওয়ার পর যখন প্রথমবার আম্বালা এয়ারস্ট্রিপ বানানো হয়, তখন সেখানে জাগুয়ার ফাইটার জেটের স্কোয়াড্রান ৫ আর স্কোয়াড্রান ১৪ কে মোতায়েন করা হয়। এরপর সেখানে মিগ-২১ বাইসনকেও মোতায়েন করা হয়। আম্বালা এয়ারফোর্স স্টেশনের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হল, সেখান থেকে ভারতের সবথেকে বড় শত্রু পাকিস্তান মাত্র ২২০ কিমি দূরে। শত্রুদের যেকোন দুঃসাহসকেই ভারতীয় বায়ুসেনার বিমান আম্বালা থেকে উড়ে গিয়ে নিমিষেই মিটিয়ে দিয়ে আসবে।

জানিয়ে দিই, পুলওয়ামা হামলার পর ভারত পাকিস্তানের বালাকোটে যেই এয়ার স্ট্রাইক করেছিল। সেই স্ট্রাইকের পিছনেও বড় হাত ছিল আম্বালা এয়ারবেসের। কারণ এই এয়ারবেস থেকেই লড়াকু বিমান মিরাজ-২০০০ পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকেছিল আর সেখানকার সন্ত্রাসী ঘাঁটি গুলোকে গুঁড়িয়ে দিয়ে এসেছিল।