Press "Enter" to skip to content

যোগীর রাজ্যে ব্যাপক হারে কমেছে মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ, সাজা দেওয়াতেও দেশের সেরা ইউপি! রিপোর্ট NCRB-র

নয়া দিল্লীঃ উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ (Yogi ) মহিলাদের অত্যাচার করা মানুষদের উপর সর্বনাশ খাড়া হয়ে নেমেছে। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ মহিলাদের উপর কুনজর দেওয়া অপরাধীদের বিরুদ্ধে কড়া অ্যাকশন নিচ্ছেন। NCRB দ্বারা প্রকাশিত ক্রাইম ইন ইন্ডিয়া অনুযায়ী, মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধে সাজা দেওয়ানয় উত্তর প্রদেশ গোটা দেশে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ধর্ষণের মামলায় পাঁচ অপরাধীকে ফাঁসিতে পর্যন্ত ঝোলানো হয়েছে। আর ১৯৩ জন অপরাধীকে আজীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, উত্তর প্রদেশে ২০১৭ সালে যোগী আদিত্যনাথ মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া অপরাধে লাগাম লাগাতে সক্ষম হয়েছে সরকার। রাজ্যে ২০১৬ এর তুলনায় ২০২০ সালে ধর্ষণের ৪২.২৪ শতাংশ মামলা কমেছে। আর ৩৯ শতাংশ মহিলাদের অপহরণের মামলা কমেছে।

রাজ্যে যোগী আদিত্যনাথ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ে লাগাতার মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া অপরাধ কমেছে। ২০১৯ এর তুলনায় ২০২০ সালে ধর্ষণের ঘটনা ২৭.৩২ শতাংশ কমেছে। রাজ্যে ও মেয়েদের সাথে হওয়া ঘটনাগুলির বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিয়ে পোকসো আইনের অধীনে সরকার প্রমাণের ভিত্তিতে আদালতগুলিতে আসামিদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে তাঁদের সাজা দিয়েছে। মহিলা আর মেয়েদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কেন্দ্র সরকার দ্বারা স্থাপনা করা নির্ভয়া ফান্ডে যুক্ত দেশের আট শহরের মধ্যে লখনউও যুক্ত আছে।

নির্ভয়া ফান্ড অন্তর্গত যোগী সরকার মহিলাদের সুরক্ষার জন্য লখনউ পুলিশের সাথে েন পাওয়ার লাইন ১০৯০ আর অন্যান্য সুরক্ষা এজেন্সি গুলোকে মজবুত আর সক্রিয় করা হয়েছে। যোগী সরকার রাজ্য জুড়ে অ্যান্টি রোমিও স্কোয়াড মোতায়েন করার সাথে সাথে যায়গায় যায়গায় উর্দিধারী মহিলা পুলিশ কর্মীও মোতায়েন করেছে। ইউপি ১১২ ইন্ডিয়া মোবাইল অ্যাপ রাত্রি সুরক্ষা কবচ যোজনা, মহিলা হেল্ড ডেস্কের সাথে সাথে মোড়ে মোড়ে পিঙ্ক বুথ বানানো সবই করেছে যোগী সরকার। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ নিজেই প্রতিমাসে মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া ক্রাইম নিয়ে আধিকারিকদের সাথে বৈঠক করেন।