যোগী আদিত্যনাথ কেন ভোর থেকে উঠে কাজে লেগে পড়েন তার দারুন বিশ্লেষণ দিলেন তিনি নিজেই।

বর্তমানে ভারতীয় রাজনীতিতে সবথেকে জনপ্রিয় নেতা দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং উনার পর যদি কেউ সব থেকে বেশি দেশে জনপ্রিয় তিনি হলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।
তবে যোগী আদিত্যনাথ যে শুধু তার হিন্দুত্ববাদের জন্য বিখ্যাত তাই নয়, এছাড়াও উনার মধ্যে এমন কিছু বিষয় রয়েছে যা উনাকে দেশের ২য় তম জনপ্রিয় নেতা বানিয়েছে।

আসলে যোগী আদিত্যনাথ ষ্পষ্ট কথা স্পষ্ট ভাবে বলতে পছন্দ করেন এবং একই সাথে কাজেও তা করেন বলে মনে করেন দেশবাসী। সম্প্রতি কিছু সরকারি কর্মচারীরা যোগী আদিত্যনাথের উপর অভিযোগ এনেছিলেন যে, ‘ যোগি আদিত্যনাথ অনেক সকালে উঠে উত্তরপ্রদেশের উন্নয়ন সংক্রান্ত মিটিং এ  বসে পড়েন এবং মিটিং রাত ১২টা বা ১ টা পর্যন্ত চলতে থাকে।’

এই সংক্রান্ত বিষয়ে যোগি আদিত্যনাথকে প্রশ্ন করা হয়-

বিউওক্রেসি আপনার উপর অভিযোগ এনেছে, আপনি সকালে ৩ টেয় উঠে পড়েন এবং সকাল ৭ টা বা ৮ টা বাজতেই কাজকর্ম শুরু করে দেন যা রাত ১২-১ টা পর্যন্ত চলতে থাকে। এব্যাপারে আপনি কি বলবেন?

উত্তরে যোগীজি বলেন, দেখুন এটা আমাদের কার্যপদ্ধতির একটা অংশ, আমি নিজে সকাল ৩.৩০ থেকে কাজ শুরু করি।আমি যখন গোরক্ষপুরে থাকতাম তখন সেখানে গোশালা ছিল এবং মন্দির ছিল যেখানে আমাকে সময় দিত হতো সকাল থেকেই। কিন্তু বর্তমানে লখনউতে আমার কাছে কোনো গোশালা নেই আর সেই রকম কোনো মন্দিরও নেই। তাই স্বাভাবিকভাবে আমাকে যদি পুরো উত্তরপ্রদেশকে মন্দির বানাতে হয় এবং একটা পবিত্র স্থানে পরিণত করতে হয় তার জন্য পুরো সময় দিতে হবে। আর সেটাই আমি এবং আমার টীম দিচ্ছি। পার্টি আমাকে যে গুরুত্বপূর্ণ সময় দিয়েছে আমি তার সম্পূর্ণ ব্যবহার করবো। যোগী আদিত্যনাথের এই বক্তব্যের পরেই উপস্থিত সকলে হাততালি দিতে শুরু করে।

 

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close