Press "Enter" to skip to content

রবিঠাকুরের সঙ্গে পুজো পেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ চক্রবর্তী, ছবি ভাইরাল হতেই বিতর্কের ঝড়



বর্ধমানঃ আজ ২৫ শে বৈশাখ। ১২৬৮ সনের আজকের দিনই জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্ম নিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। আজ এই ২৫ শে বৈশাখের দিনে গোটা বাংলা সহ ে সারম্বরে পালিত হয় রবীন্দ্রজয়ন্তী। তবে গতবছরের ন্যায় এবারও রবীন্দ্রজয়ন্তী উৎসব সারম্বরে পালিত হচ্ছে না কোভিডের কারণে। তবে ছোটখাটো ভাবে চারিদিকে কবিগুরুকে শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে।

এরকমই এক শ্রদ্ধানুষ্ঠান আয়জিত হয়েছিল বর্ধমান শহরের প্রতাপপুর এলাকায়। আর সেখানকার রবীন্দ্রজয়ন্তী পালনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে এবং সেটা সবার চর্চার বিষয়ও হয়ে দাঁড়িয়েছে। কবিগুরুর ১৬০ তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পাশে এবং ের বিধায়ক তথা পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর ছবি রেখে পুজো হয়।

বলে দি, রাজ চক্রবর্তীর শ্বশুরবাড়ি হল বর্ধমানে। আর সেখানে রবীন্দ্রনাথের জন্মোৎসব পালিত হয়। এই অনুষ্ঠানের প্রধান উদ্যোক্তা ছিলেন রাজ চক্রবর্তীর শ্বশুর এবং শাশুড়ি। সেখানেই রবিঠাকুরের দুপাশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ চক্রবর্তী ছবি রেখে পুজো করা হয়। কেন এই কাজ করা হল সেই নিয়ে উঠেছে নানান প্রশ্ন। আর এই বিষয়ে উদ্যোক্তারাও স্পষ্ট কিছু বলতে পারেন নি।

এই ঘটনার প্রসঙ্গে তৃণমূলের জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস বলেন, ‘কবিগুরুর স্থান সবার উপরে। কিন্তু সেখানে কি হয়েছে তা আমার অতটা জানা নেই, খোঁজ নিয়ে দেখব।” আরেকদিকে, এই ঘটনা প্রসঙ্গে বর্ধমান দক্ষিণের প্রার্থী সন্দীপ নন্দী বলেন, ‘শিক্ষিত মানুষেরাই এই আয়োজন করেছে। তাঁরা কবিগুরু, রাজ চক্রবর্তী আর মমতাকে এক আসনে বসিয়েছে। এটা ভাবা যায় না।” তিনি এও বলেন যে, এটা কবিগুরু না, দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অপমান।