Press "Enter" to skip to content

রাকেশ টিকাইতের হাঙ্গামার কারণে আপেল চাষিদের লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি, থানায় দায়ের অভিযোগ

কাঙরাঃশনিবার আচমকাই ের সোলনের কৃষি মণ্ডিতে পৌঁছে যান নেতা রাকেশ টিকাইত। তাঁর আচমকা এই সফরের কারণে প্রায় ঘণ্টা খানেই কৃষি মণ্ডির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। আর এই কারণে প্রায় ৫ হাজার আপেলের পেটি বিক্রি হয়নি। যার দরুন কৃষকদের সাড়ে সাত লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়।

শনিবার সোলনের মণ্ডিতে প্রায় ২০ হাজার আপেলের পেটি বিক্রি করার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সকাল সাড়ে আটটা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত মণ্ডিতে ব্যবসায়ীরা আপেল কেনা-বেচা করে। আর এই ব্যবসার সময় রাকেশ টিকাইত আচমকাই পৌঁছে যান। সকাল ১০টা নাগাদ টিকাইত সেখানে গিয়েছিলেন। আর এরপর তাঁর সমর্থকরা সেখানে স্লোগানবাজি শুরু করে দেয়, যার জেরে সমস্ত কাজ বন্ধ হয়ে যায়।

অনেক এবং আপেল চাষি টিকাইতের এই কাজের বিরোধিতা করেন। টিকাইতের এই কার্যক্রম ৩০ মিনিটের উপরে চলেছে। আর তাঁর এই কার্যক্রমের কারণে ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায় এবং ৫ হাজার আপেলের পেটি বিক্রি হয়নি। মণ্ডিতে টিকাইত সমর্থকদের হাঙ্গামার কারণে অনেক ব্যবসায়ী সেখান থেকে চলে যান।

এরপর সোলন মণ্ডির এক আড়ৎদার টিকাইতের বিরুদ্ধে সোলন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। আড়ৎদার বিকি জানান, টিকাইত ফল মণ্ডিতে ঢুকে তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে। আর এই কারণে তাঁর প্রাণ সংশয় দেখা দিয়েছে।

এই ঘটনার পর হিমাচল প্রদেশের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী সুরেশ ভরদ্বাজ বলেন, হিমাচল দেবভূমি নামে খ্যাত। এখানে প্রতিটি অতিথিকে স্বাগত জানানো হয়। কিন্তু নিজেকে কৃষকদের নেতা বলে পরিচয় দেওয়া টিকাইত যেভাবে রাজ্যের মানুষের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছেন, সেটা নিন্দনীয়। তাঁর জন্য কৃষকদের অনেক টাকা ক্ষতি হয়েছে। এরকম কর্মকাণ্ড এখানে বরদাস্ত করা হবে না।