Press "Enter" to skip to content

রাম মন্দির নির্মাণে ব্যবহৃত পিঙ্ক পাথরের খনিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করল রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার!

অযোধ্যাঃরাজস্থানের () কংগ্রেস সরকার বংশী পাহাড়পুরের পিঙ্ক স্টোন খনিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। অযোধ্যায় মন্দিরের (Ram Mandir) নির্মাণ এই পিঙ্ক পাথর () দিয়ে করার কথা। অয্যোধ্যার কার্যশালায় রাজস্থান থেকে আশা বংশী পাহাড়পুরের পিঙ্ক পাথর গুলোকে রুপ দিয়ে মন্দির নির্মাণের কাজের যোগ্য বানানো হয়েছে। রাম মন্দিরের জন্য প্রায় তিন লক্ষ ঘনফুট পাথরের দরকার, জার মধ্যে এক লক্ষ ঘনফুট পাথর বাছাই করা হয়েছে মাত্র।

২০ হাজার ঘনফুটের পাথর রামসেবক পুরমে রাখা হয়েছে। আর বাকি পাথর গুলোকে পাহাড়পুরের খনি থেকে অযোধ্যায় আনা হত, কিন্তু খনিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর ের কাজে বাধা সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। এই বিষয়ে শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ের মহামন্ত্রি চম্পত রায় বলেন, সময় আসলে সবকিছু বলব।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে রাজস্থানের মাইনিং বিভাগ, হরাতপুর জেলা প্রশাসন আর বংশী পাহাড়পুরের খনিতে অবৈধ খনন চলার অভিযোগে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। জেলা শাসক নথমল দিদেল বলেন, আমরা খবর পেয়েছিলাম যে, অবৈধ খনন চলছে। বর্তমানে খননের জন্য পট্টা দেওয়া হয় নি, সেই কারণে এখন সবরকম খনন সম্পূর্ণ ভাবে অবৈধ।

অয্যোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ প্রায় শুরু হয়ে গিয়েছে। রাম মন্দিরের প্রথম স্তম্ভ গাড়ার কাজ ১১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে। আর কার্যশালায় রাখা পিঙ্ক স্টোন পাথর রাম মন্দিরে কীভাবে লাগানো হবে, সেটা নিয়ে পরিকল্পনা চলছে। কিন্তু এরমধ্যে রাজস্থান থেকে যেই খবর আসছে, সেটা রাম মন্দির নির্মাণের কাজে বাধা সৃষ্টি করতে পারে।