Press "Enter" to skip to content

রাহুল গান্ধী ইস্তফা দিলেন রাহুল গান্ধীকে, আবার ইস্তফা অস্বীকার করলেন রাহুল গান্ধী: রোহিত সারদানা

কংগ্রেসের পরবর্তী সভাপতি কে হবে এই নিয়ে এখন ভারতীয় রাজনীতিতে চর্চা তুঙ্গে। অনেক কংগ্রেসের নেতা সভাপতি পদের জন্য রাহুল গান্ধীকে পছন্দ করছেন। আবার অনেকে ের মাধ্যমে এই পদের জন্য নেতা বাছা করে নিতে চাইছেন।

লাগাতার একের পর এক নির্বাচনে হারের মুখোমুখি হওয়ার পর এখন কংগ্রেস আত্মমন্থন করার উপর বিবেচনা করছে। রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব নিয়ে প্ৰশ্ন উঠার পর তিনি সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন।

সুত্র অনুযায়ী, রাহুল বলেছেন যে এই ইস্যুটি নির্বাচন করে মেটাতে হবে। এরপর দলের নেতারা ওনাকে দলের সভাপতি পদ সামলানোর জন্য আবেদন করেন। সংবাদসংস্থা PTI এর সুত্র অনুযায়ী, রাহুল গান্ধী বলেছেন যে, ‘আমি প্রবীণ নেতাদের গুরুত্ব দিই। ওনাদের মধ্যে অনেকেই আমার বাবার সমান।” সভাপতি হওয়ার জন্য প্রবীণ নেতাদের আবেদনের পর তিনি বলেন, ‘দল যেই দায়িত্ব দেবে, আমি সেটিকে পালন করতে প্রস্তুত।”

রাহুল গান্ধী সভাপতি পদে বসবেন কিনা এই দ্বন্দ্বের মধ্যে বিখ্যাত সাংবাদিক রোহিত সারদানার এক হয়েছে। রোহিত সারদানার মন্তব্য একদিকে যেমন গুরুত্বপূর্ণ অন্যদিকে তেমনি মজাদার। রোহিত সারদানার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল

আসলে রাহুল গান্ধীকে নিয়ে বলেছেন যে রাহুল গান্ধী নিজেকেই ইস্তফা দিয়েছেন আবার নিজের ইস্তফা মঞ্জুর করলেন না। রোহিত সারদানা বলেছেন, মাথা ধরে যাচ্ছে – রাহুল গান্ধী রাহুল গান্ধীকে ইস্তফা দিলেন, রাহুল গান্ধী আবার রাহুল গান্ধীকে বোঝালেন, রাহুল গান্ধী রাহুল গান্ধীকে বললেন রাহুল গান্ধীকে ছাড়া কিভাবে পার্টি চলবে। তখন রাহুল গান্ধীর কথা শুনে রাহুল গান্ধী ইস্তফা বাতিল করলেন। রোহিত সারদানার ভিডিও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে এবং ভিডিও নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুন হাসি ঠাট্টা শুরু হয়ে। তবে ভিডিওটিকে সকলে হাসির ছলে নিলেও রোহিত সারদানার বক্তব্য একেবারে শত শতাংশ সঠিক।