Press "Enter" to skip to content

লক্ষ্মী ভাণ্ডার দেওয়ার নামে মহিলাদের ১০০ দিনের কাজ থেকে বঞ্চিত করা হবে! আশঙ্কা শুভেন্দুর


কলকাতাঃ রাজ্যে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ার্জী ( banerjee)। এদিন নবান্নে বৈঠক থেকে তিনি জানিয়েছেন যে, এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে বিনামূল্যেই ফর্ম সংগ্রহ করা যাবে। পাশাপাশি প্রকল্প নিয়ে যাতে কোনও না হয়, সেটার দিকেও কড়া নজর রাখার কথা বলেছেন তিনি। আর এবার সেই প্রকল্প নিয়েই মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা (suvendu adhikari)।

বৃহস্পতিবার একটি সাংবাদিক সম্মেলন থেকে বিরোধী দলনেতা বলেন, নরেন্দ্র মোদী একদিকে দেশকে আত্মনির্ভর বানানোর সংকল্প নিয়েছেন। অন্যদিকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যকে পরনির্ভর করতে উদ্ী হয়েছেন। শুভেন্দুবাবু বলেন, রাজ্য দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। ভোটের আগে মমতা ব্যানার্জী বলেছিলেন লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্পে সবাই সুবিধা পাবেন। কিন্তু এখন উনি আবার ক্যাটাগরি আনছেন। সরকারের হাতে টাকা না থাকলে যা হয়।

লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্পে মহিলাদের নাম মাত্র হাত খরচ দেওয়ার বিরোধীতা করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি পাল্টা যুক্তি দিয়ে বলেছেন, রাজ্যের সমস্ত জেনারেল ক্যাটাগরির মহিলাদের মাসে ৩ হাজার টাকা আর তফসিলি জাতি বা পিছিয়ে পড়া মহিলাদের মাসে ৫ হাজার টাকা দিতে হবে। রাজ্য সরকার চাকরি দিতে ব্যর্থ, তাই এভাবেই মহিলাদের রোজগারের ব্যবস্থা করে দিক।

শুভেন্দুবাবু আরও বলেন, রাজ্যের সমস্ত মহিলাদের যদি টাকা দিতে হয় তাহলে মাসে ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা লাগবে। সরকার সেই টাকা কমিয়ে ১ হাজার ৩০০ কোটিতে এনেছে। রাজ্যে ৫ কোটির বেশি মহিলা রয়েছেন, কিন্তু সরকারের প্রকল্পের আওতায় মাত্র ২ কোটি মহিলাকে আনা হয়েছে। বিরোধী দলনেতা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, যেসব মহিলারা ১০০ দিনের কাজের সঙ্গে যুক্ত, তাঁদের বঞ্চিত করবে সরকার।