Press "Enter" to skip to content

লজ্জাজনক! ভারতের সোনা জেতা আটকাতে নীরজের জ্যাভলিন লুকিয়ে দিয়েছিলেন পাকিস্তানি খেলোয়াড়

টোকিও অলিম্পিকে গোল্ড মেডেল জিতে ইতিহাস তৈরি করেছেন নীরজ । ফাইনালে পৌঁছানো এবং তারপর গোল্ড মেডেল জয় করা নীরজের জন্য মোটেও সহজ পক্রিয়া ছিল না। উনাকে বহু কঠিন সমস্যার মধ্যে দিয়ে এই সাফল্য অর্জন করতে হয়েছে। আর এই কঠিন সমস্যার মধ্যে ছিল পাকিস্তানি খেলোয়াড় আরশাদ নাদিমের লজ্জাজনক কান্ড। আরশাদ নাদিম পাকিস্তানের হয়ে জ্যাভলিন এথেলিট ছিলেন।

মেডেল জেতার দৌড়ে অন্যান্য দেশের খেলোয়াড়দের সাথে পাকিস্তানের আরশাদ নাদিমও ছিলেন। তবে আরশাদ নাদিমের এমন কান্ড সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে যা জানার পর বিশ্বের খেলোয়াড়প্রেমীরা ছিঃ ছিঃ করেছেন। আসলে ভারতের নীরজ চোপড়াকে মেডেল জেতা থেকে আটকানোর জন্য লজ্জাজনক কান্ড করেছিলেন আরশাদ নাদিম। যদিও শেষ অবধি আরশাদ সফল হননি।

এই ঘটনা সম্পর্কে নীরজ চোপড়া নিজে টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে এক ইন্টারভিউতে জানিয়েছেন। নীরজ বলেন, ফাইনাল শুরু হওয়ার সময় তার সাথে অদ্ভুত ঘটনা ঘটে। তিনি নিজের বর্শা খুঁজে পাচ্ছিলেন না। নীরজের কথায়, “আমি আমার বর্শা খুঁজে পাচ্ছিলাম না। খুবই চিন্তিত হয়ে পড়েছিলাম। হটাৎ আমি আমার জ্যাভলিন পাকিস্তানি খেলোয়াড় আরশাদ নাদিমের কাছে দেখতে পায়।”

নীরজ আরো বলেন, “এরপর আমি পাক খেলোয়াড় আরশাদ নাদিমকে বলি,ভা এটা আমরা জ্যাভলিন। আমাকে এটা দিয়ে দাও, আমি এটাই থ্রো করতে চাই। আরশাদ নাদিম কেন বর্শা নিয়েছিল তা নিয়ে নীরজ বেশকিছু মন্তব্য করেননি।

https://platform.twitter.com/widgets.js

তবে খেলা গবেষকদের মতে, নীরজের খেলাকে প্রভাবিত করতেই আরশাদ এমন কান্ড করেছিল। নিজের বর্শা না পেয়ে যাতে নীরজ অশান্ত হয়ে খেলায় পিছিয়ে পড়ে, এমনটাই উদেশ্য ছিল বলে দাবি খেলা বিশেষজ্ঞদের।