Press "Enter" to skip to content

লাদাখে হার কাঁপানো ঠাণ্ডায় রোজ বদলি হচ্ছে চীনা জওয়ান, আরেকদিকে বহাল তবিয়তে আছে ভারতীয় জওয়ানরা

লাদাখঃ খবর পাওয়া যাচ্ছে যে, () লাদাখের () ভীষণ ঠাণ্ডা বরদাস্ত করতে পারছে না। তাঁদের ফরোয়ার্ড পজিশনে রোজই রোটেট করা হচ্ছে। আর এর বিপরীতে () জওয়ানরা একই জায়গায় অনেকদিন ধরে পজিশন বানিয়ে বসে আছে। এখনও পর্যন্ত আক্রমণাত্বক মনোভাব আপন করা চীন ভয়ঙ্কর ঠাণ্ডার সামনে মাথা নুইয়ে দিয়েছে।

সংবাস সংস্থা ANI অনুযায়ী এক সরকারি সুত্র জানিয়েছে যে, ‘বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখার ফরোয়ার্ড পোস্টে মোতায়েন আমাদের জওয়ানরা নিজেদের স্থানে চীনের জওয়ানদের তুলনায় অনেকদিন ধরে রয়েছে। ভয়ঙ্কর ঠাণ্ডার কারণে চীনের জওয়ানদের রোজই বদলে ফেলা হচ্ছে।

সুত্র থেকে জানা যায় যে, এই আবহাওয়ায় নিজেদের কাজ সটীক ভাবে করার মামলায় ভারতীয় সেনা চীনের জওয়ানদের মোকাবিলায় অনেক শক্তিশালী। আর এর প্রধান কারণ হল প্রচুর পরিমাণে ভারতীয় জওয়ান লাদাখের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আগে থেকেই নিযুক্ত হওয়ার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। এরমধ্যে শিয়াচেনের হিমবাহ আর অন্যান্য উঁচু স্থানও আছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এই ভীষণ ঠাণ্ডা অধিকতর সেই সমস্ত সামরিক শৃঙ্গে দেখা যাচ্ছে যেখানে চীনের সেনা ভারতীয় জওয়ানদের বিপরীতে নিজেদের জওয়ান মোতায়েন করেছে। সুত্র থেকে জানা যায় যে, একদিকে যখন ভারতীয় জওয়ানরা দিনের পর দিন একই জায়গায় মোতায়েন রয়েছে, সেখানে ঠিক তাঁর উল্টো দিকে চীনের জওয়ানদের রোজই বদলি হচ্ছে।

জানিয়ে দিই, এপ্রিল-মে মাসে চীন আক্রমণাত্বক রুপ দেখিয়ে পূর্ব লাদাখ সেক্টরে ভারতীয় সীমান্তের পাশে প্রায় ৬০ হাজার জওয়ান মোতায়েন করেছিল। ট্যাঙ্ক আর হাতিয়ার দিয়ে সুসজ্জিত এই জওয়ানদের কাঁধে ভর করে ভারতীয় এলাকায় অনুপ্রবেশ করে সেখানে কবজা জমাতে চাইছিল চীন। ভারত এর পাল্টা চীনকে মোক্ষম জবাব দিয়ে একের পর এক নিজেদের জায়গা পুনরুদ্ধার করে।