Press "Enter" to skip to content

লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে মেরে ফেলল ফেসবুক! ক্ষোভে ফেটে পড়ল অনুরাগীরা

[ad_1]

কলকাতাঃ ধরুন আচমকা আপনাকে কেউ ফোন করে বলল যে, ‘ফেসবুক বলছে তুই মরে গেছিস”! এই কথা শুনে আপনার কেমন লাগবে? এমনই কিছু ঘটে গেল বিখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে নিয়ে। ফেসবুক ওনাকে এবার জীবিত অবস্থাতেই মেরে ফেলল। আর লেখিকা এই নিয়ে নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে শোক প্রকাশও করেছেন।

আসলে, ফেসবুকে একটি সিস্টেম আছে যেখানে কেউ মারা গেলে ফেসবুককে সেটি জানানো হলে তাহলে ফেসবুক তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টটিকে ‘remembering” করে দেয়। এর মানে এই যে, সবাই সেই অ্যাকাউন্ট দেখতে পারবেন, কিন্তু সেখানে কী পোস্ট করা ছিল, তা আর দেখতে পারবেন না। তবে এই সিস্টেম শুধু মৃত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। জীবিতদের ক্ষেত্রে নয়।

কিন্তু ফেসবুক এবার জীবিত তসলিমা নাসরিনকে মৃত বলে ঘোষণা করে দিল। যা নিয়ে স্বয়ং লেখিকে ক্ষোভ এবং শোক প্রকাশ করেছেন। তসলিমা নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘আমি এখনও বেঁচে আছি। কিন্তু আপনি আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট স্মরণীয়। কি দুঃখের খবর! তুমি এটা কিভাবে করতে পারলে? দয়া করে আমাকে আমার অ্যাকাউন্ট ফিরিয়ে দাও।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

তসলিমা তাঁর ট্যুইটে মেটা, ফেসবুক সবাইকে ট্যুইট করেছেন। তিনি মঙ্গলবার বিকেল ৪:৩৮ নাগাদ এই ট্যুইট করেছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তসলিমার আইডি ফিরিয়ে দেয় নি ফেসবুক। অন্যদিকে অনেকেই আবার তসলিমাকে পরামর্শ দিয়ে বলছেন যে, ওনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছিল। যদিও, এই সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। কারণ, কেউ হ্যাক করে নিজে থেকেই সেই আইডি থেকে ফেসবুকে জানিয়েছেন যে তসলিমা মারা গিয়েছেন। আর সেই কারণে তসলিমার আইডি স্মরণীয় করে দিয়েছে ফেসবুক।

অন্যদিকে তসলিমার অ্যাকাউন্টের সঙ্গে ফেসবুকের এই কারসাজির বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে লেখিকার ভক্তরা। তাঁদের দাবি, ফেসবুক ইচ্ছে করে তসলিমার সঙ্গে এই কাজ করেছে। ফেসবুক তসলিমার কণ্ঠরোধ করতে চায় বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে তসলিমার অনুরাগীরা। যদিও, ফেসবুকের তরফ থেকে এখনও এই নিয়ে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

[ad_2]