Press "Enter" to skip to content

শত্রুদের ঘুম উড়িয়ে অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করল ভারত

নয়া দিল্লীঃ প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা () একটি বড়সড় সফলতা হাসিল করল। সংস্থা আজ লেজার গাইডেড অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মিসাইলের () সফল পরীক্ষণ করেছে। DRDO আজ আহমেদনগর কেকে রেঞ্জে এমবিটি অর্জুন ট্যাঙ্ক থেকে লেজার গাইডেড অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মিসাইলের সফল পরীক্ষণ করেছে। DRDO জানায়, এই মিসাইল তিন কিলোমিটার দূরে থাকা লক্ষ্যে সঠিক আঘাত হানতে সক্ষম। এই মিসাইলকে অনেক কয়েকটি প্ল্যাটফর্ম থেকে লঞ্চ করা যেতে পারে। বর্তমানে এমবিটি অর্জুনের একটি বন্দুক থেকে প্রযুক্তিগত মূল্যায়ন পরীক্ষা চলছে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

এছাড়াও এটি হিট (হাই স্পিড এক্সপেনডেবল এরিয়াল টার্গেট) ওয়ারহেডের মাধ্যমে বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়াশীল আর্মার (ERA) সুরক্ষিত যানবাহনকে নাস্তানাবুদ করতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি আধুনিক ট্যাঙ্কগুলির পাশাপাশি ভবিষ্যতের ট্যাঙ্কগুলিও ধ্বংস করতে সক্ষম হবে। একই সময়ে, নিম্ন উচ্চতায় উড়ন্ত হেলিকপ্টারগুলি এটিজিএমের মাধ্যমেও ধ্বংস করা যাবে।

আরেকদিকে, ভারত () মঙ্গলবার স্বদেশী হাই স্পীড টার্গেট ড্রোন অভ্যাস (ABHYAS) এর সফল পরীক্ষণ করে। অভ্যাস একটি উচ্চ-গতির ড্রোন যা অস্ত্র ব্যবস্থার অনুশীলনের সময় মিসাইল দ্বারা টার্গেট করা যেতে পারে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং মঙ্গলবার বলেন, প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (Defence Research and Development Organisation) উড়িষ্যার বালাসোরের ইন্টিগ্রেটেড টেস্ট রেঞ্জ (ITR) থেকে অভ্যাস হাই স্পীড এক্সপেন্ডেবেল এরিয়াল টার্গেটের সফল পরীক্ষণ করেছে। এটা ভারতের জন্য একটি বড় উপলব্ধি।

https://platform.twitter.com/widgets.js

রাজনাথ সিং বলেন, ‘এটি বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র সিস্টেমের মূল্যায়নের লক্ষ্য হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই কৃতিত্বের জন্য ডিআরডিও এবং অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের অনেক অভিনন্দন।”