Press "Enter" to skip to content

ষড়যন্ত্র: উহান থেকে উৎপন্ন হওয়া ভাইরাস পৌঁছে গেল পুরো বিশ্বে! কিন্তু বেজিং ও সাংহাই এ প্রবেশ করতে পারলো না


বিশ্বের বড় বড় লোকজন হলিউড তারকা, অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, স্পেনীয় প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী এবং এখন পর্যন্ত ব্রিটেনের যুবরাজ চার্লস করোনা দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে চীনের একটাও নেতা , এমনকি কোনো সামরিক কমান্ডারকে স্পর্শ করেনি করোনা ভাইরাস।

অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে, হাজার হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছে, লক্ষ লক্ষ মানুষ এই রোগে ভুগেছে এবং অসংখ্য মানুষ ঘরে ঘরে তালাবদ্ধ হয়ে পড়েছে, অনেক দেশ লক হয়ে গেছে যার মধ্যে ভারতও রয়েছে।

করোনার ভাইরাসটি চীনের উহান শহর থেকে উদ্ভূত হয়েছিল এবং এখন বিশ্বের প্রতিটি কোণে পৌঁছেছে, তবে ভাইরাসটি চীনের রাজধানী বেইজিং এবং অর্থনৈতিক রাজধানী সাংহাইয়ের পৌঁছায়নি। অথচ শহরগুলির মধ্যে খুব একটা দূরত্ব নেই।

https://platform.twitter.com/widgets.js

আজ প্যারিস বন্ধ, নিউ ইয়র্ক বন্ধ, বার্লিন বন্ধ, দিল্লি বন্ধ, মুম্বাই বন্ধ, টোকিও বন্ধ আছে, বিশ্বের প্রধান অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক কেন্দ্রগুলি বন্ধ আছে, তবে বেইজিং ও খোলা আছে, সেখানে করোনা রয়েছে কোনও প্রভাব দেখানো হয়নি, কেবল কয়েকটি মামলা বেরিয়ে এসেছিল, তবে একরকমভাবে বেইজিং এবং সাংহাইয়ের উপর করোনার কোনও প্রভাব পড়েনি।

এমন এক শহর যেখানে চীনের সমস্ত নেতারা বাস করেন, সামরিক নেতারা এখানে বাস করেন, যারা চীনের শক্তি চালায় তারা এখানে বাস করে, বেইজিংয়ে কোনও লক ডাউন নেই, এখানে খোলা রয়েছে করোনার কোনও প্রভাব নেই। সাংহাই হ’ল শহর যা চীনের অর্থনীতি পরিচালনা করে, এটি চীনের অর্থনৈতিক রাজধানী। এখানে চীনের সমস্ত ধনী ব্যক্তি বাস করেন, শিল্প পরিচালনা করেন, এখানে কোনও লক ডাউন নেই, এখানে করোনার কোনও প্রভাব নেই। করোনা পুরো বিশ্বে পৌঁছে গেলেও ও সাংহাই পৌঁছাতে পারেনি। সম্ভবত পুরো বিষয়টি চীনের পরিকল্পনামাফিক তাই করোনা উহান শহর টপকাতে পারেনি কিন্তু পুরো বিশ্বে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে।