Press "Enter" to skip to content

সমস্যায় পড়লেন বাবুল সুপ্রিয়! বিজেপি ছাড়তেই হু হু করে কমছে ফলোয়ারের সংখ্যা

গায়ক, নেতা, অভিনেতা ইত্যাদি পেশার ক্ষেত্রে অনুগামীরা জীবনের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে। বলা যেতে পারে অনুগামীরা গায়ক, নেতা, অভিনেতাদের জীবন গড়ে দেয়। তবে যদি অনুগামীরা দূরে সরতে থাকে তাহলে উক্ত পেশার সাথে যুক্ত মানুষজনের জন্য জীবন কঠিন হওয়ার সম্ভবনা থাকে। সম্প্রতি বাবুল সুপ্রিয় ছাড়ার পর অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে আনফলো করার ডাক দেয়। যার প্রভাব এখন হাতে নাতে দেখা যাচ্ছে।

বাবুল সুপ্রিয় বিজেপি ছেড়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে ে যোগদান করেছে। ফলে বঙ্গ রাজনীতিতে জোর আলোচনা শুরু হয়েছে বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে। বিভিন্ন মহল থেকে বিভিন্ন রকম প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে। বাবুল সুপ্রিয় বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণ অ্যাকটিভ। তিনি তার রাজনৈতিক জীবনের উত্থান পতনের সব আপডেট সোশ্যাল মিডিয়ায় দিতে থাকেন। ফলত, তাঁর তৃণমূলে‌যোগদান নিয়ে যে তাঁর ফলোয়ারদের মধ্যে প্রতিক্রিয়া তৈরি হবে তা বলাই বাহুল্য।

লক্ষণীয় বিষয়, তৃণমূলে যোগদানের চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই তাঁর ফলোয়ার সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। ের সাংসদ, যিনি সম্প্রতি টিএমসিতে যোগ দেওয়ার জন্য বিজেপি ছেড়েছেন, রবিবার ২১৪৫ জন ফলোয়ার হারিয়েছেন এবং সোমবার সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে। ২০ শে সেপ্টেম্বর টুইটারে তাঁর ফলোয়ার সংখ্যা ৩৪১,০৭৮ এ নেমে এসেছে।

তৃণমূল ে যোগ দেওয়ার পর থেকেই মানুষ বাবুল সুপ্রিয়কে টুইটারে আনফলো করতে শুরু করেছে। এক রিপোর্ট অনুযায়ী, বাবুল সুপ্রিয় বিগত এক মাসে টুইটারে যে সংখ্যক ফলোয়ার বৃদ্ধি করেছিলেন, মাত্র একদিনে তার থেকে বেশি সংখ্যায় ফলোয়ার কমেছে।

বাবুল সুপ্রিয় বলেছেন, তিনি তৃণমূলে যোগদান করেছেন কারণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে একটি চমৎকার সুযোগ দিয়েছেন যাতে তিনি তাঁর রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সফল করতে পারেন।তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে গান‌ও গাইবেন বলে জানিয়েছেন।