Press "Enter" to skip to content

সমাজবাদী আতর ব্যবসায়ীর বাড়িতে মিলল ১৫০ কোটি টাকা, নোট গুনতে গিয়ে ক্লান্ত IT টিম

[ad_1]

কানপুরঃ আগামী বছর উত্তর প্রদেশে (Uttar Pradesh) হতে চলা বিধানসভা নির্বাচনের (Voting) আগে আয়কর বিভাগ গোটা রাজ্য জুড়ে তুমুল হারে তল্লাশি চালাচ্ছে। সমাজবাদী নেতাদের পর এবার আয়করের টিম উত্তর প্রদেশের কনৌজের ব্যবসায়ী পীযুষ জৈনের বাড়ি এবং বাকি জায়গায় তল্লাশি চালায়। তল্লাশিতে বিপুল পরিমাণে নগদ টাকা (Indian Rupee) আর ভুয়ো ইনভয়েস উদ্ধার হয়েছে, যা দেখে আয়কর বিভাগের আধিকারিকদের চক্ষু ছানাবড়া।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, তল্লাশির পর আয়কর বিভাগের টিম ১৫০ কোটি (Crore) টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে। নগদ টাকার পরিমাণ এত বেশি ছিল যে, গোনার জন্য ম্যাশিন পর্যন্ত আনতে হয়। আয়কর বিভাগের কর্মকর্তারা তল্লাশিতে ২০০-র বেশি ভুয়ো চালান বাজেয়াপ্ত করেছে আর কারখানার চারটি ট্রাক সিল করেছে।

তল্লাশির পর আয়কর বিভাগের আধিকারিকরা পীযুষ জৈনকে বাড়ির ভিতরেই জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে যে, আয়কর বিভাগের টিম পীযুষ জৈনের কানপুর আবাসের পর কনৌজের আবাসেও তল্লাশি চালায় ও তদন্ত করা শুরু করে।

বলে দিই, ‘সমাজবাদী আতর” লঞ্চ করায় পীযুষ জৈনের বড় ভূমিকা ছিল। এই আতরের লঞ্চ সমাজবাদী পার্টির সভাপতি তথা রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব নিজে করেছিলেন। সেই সময় পীযুষ জৈন বলেছিলেন, ২০২২-র নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে এই আতরটিকে ২২টি সুগন্ধি ফুল দিয়ে বানানো হয়েছে।

এর আগেও সমাজবাদী পার্টির নেতাদের ডেরায় আয়কর বিভাগ তল্লাশি চালিয়েছিল। সেই সময় আয়কর বিভাগ ৮৬ কোটি টাকার অঘোষিত সম্পত্তির হদিশ পেয়েছিল। ৪ দিন চলা এই তল্লাশির পর আয়কর বিভাগ বলেছিল- লখনউ, মইনপুর, কলকাতা, ব্যাঙ্গালুরু আর এনসিআর-র ৩০ জায়গায় তল্লাশি করা হয়েছিল। সেখান থেকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নথি আর ডিজিটাল ডেটা উদ্ধার করা হয়েছিল।

[ad_2]