Press "Enter" to skip to content

সরকারের টাকা দিয়ে আর পড়ানো হবেনা কোরআন! অসমে সমস্ত মাদ্রাসা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত বিজেপি সরকারের

() রাজ্যে সরকার দ্বারা সঞ্চালিত সমস্ত () আর সংস্কৃত স্কুল গুলোকে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাজ্যে চলা চলা ধার্মিক স্কুল গুলোকে কয়েকমাসের মধ্যেই হাইস্কুল আর উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পরিণত করা হবে। অসমের শিক্ষা মন্ত্রী () বলেন, আমরা সমস্ত মাদ্রাসা আর সংস্কৃত স্কুল গুলোকে হাই স্কুল আর উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কারণ আমরা রাজ্যে ধার্মিক সংস্থান গুলোকে আর ফান্ড দিতে পারব না। যদিও, বেসরকারি সংগঠন/ সামাজিক সংগঠন দ্বারা সঞ্চালিত মাদ্রাসা গুলো জারি থাকবে।

হেমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, ধার্মিক উদ্দেশ্যর জন্য ধর্ম, ধার্মিক শাস্ত্র, আরবি আর অন্য ভাষায় পড়াশুনা করানো সরকারের কাজ না। উনি বলেন, যদি কোন বেসরকারি সংগঠন নিজের টাকা খরচ করে ধর্মের পড়াশুনা চালাতে পারে, তাহলে আমাদের কোন সমস্যা নেই। উনি বলেন, মাদ্রাসায় যদি কোরআন পড়ানর জন্য রাজ্য সরকারের টাকা ঢালতে হয়, তাহলে আমাদের গীতা আর বাইবেল পড়ানর জন্যও টাকা দেওয়া উচিৎ।

মন্ত্রী পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন যে, শুধুমাত্র সরকার দ্বারা সঞ্চালিত ধার্মিক স্কুল গুলোকেই বন্ধ করা হচ্ছে। মাদ্রাসা আর সংস্কৃত স্কুলে কাজ করা শিক্ষকদের চাকরিও যাবেনা বলে জানিয়েছেন তিনি। উনি জানান, অবসরের সময় পর্যন্ত এই শিক্ষকদের ঘরে বসে পয়সা দেবে সরকার।

https://platform.twitter.com/widgets.js

আপনাদের জানিয়ে দিই, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড অনুযায়ী অসমে রাজ্য সরকার দ্বারা ৬১২ টি মাদ্রাসা চালানো হয়। ওই মাদ্রাসা গুলোতে ইসলামিক শিক্ষা দেওয়ার সাথে সাথে অন্যান্য বিষয় গুলো নিয়েও পড়ানো হয়। মাদ্রাসার সাথে সাথে সরকারের অনুদানে চলা ১০১ টি সংস্কৃত বিদ্যালয়ও আছে। আর এই সবগুলোকেই বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ম সরকার।