Press "Enter" to skip to content

সরকারের ৮৫ শতাংশ ভর্তুকি নিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসা, মাসে মাসে হবে লক্ষ লক্ষ টাকা আয়

[ad_1]

নয়া দিল্লিঃ জানেন কি মৌমাছি প্রতিপালন করেও রোজগার করা যায় লক্ষ লক্ষ টাকা। মৌচাক সংগ্রহ করে তা থেকে তৈরি মধু ও মোম বিক্রি করে ভালো লাভ করতে পারবেন আপনিও। মৌমাছি পালনের ফলে কৃষি ও উদ্যানজাত উৎপাদন বৃদ্ধির সম্ভাবনাও রয়েছে। আর এই কারণেই সরকারও বর্তমানে এই ব্যবসার কাজে সহায়তা কর থাকে।

এই ব্যবসা শুরুর জন্য প্রথমে পেশাদার সমিতি থেকে সকল প্রয়োজনীয় তথ্য জোগাড় করে নিন। এছাড়াও, আপনার নিকটবর্তী এলাকায় মৌমাছিদের অবস্থান এবং তাদের দ্বারা উৎপাদিত মধুর ধরন এবং বাজারমূল্য সম্পর্কে আগে অনুসন্ধান করুন। এই ধাপগুলি সম্পূর্ণ হওয়ার পরে মৌমাছি পালনের কাজের মূল্যায়ন করতে পারেন। এছাড়াও, আপনার মৌমাছিদের নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে থাকুন। আপনার মৌচাক-সম্পর্কিত পণ্য বিক্রির জন্য রাজ্যের রাজস্ব বিভাগের সাথে যোগাযোগ করুন। তাদের তরফ থেকে ভালো টাকা পেতে পারেন আপনি।

এখানে বলে রাখা ভালো যে এই ব্যবসার অধীনে, মৌচাকের মধু ছাড়াও, আপনি আরও অনেক পণ্য তৈরি করতে পারেন। মোম, রয়্যাল জেলি, প্রোপোলিস বা বি গাম এবং মৌমাছির পরাগ রয়েছে। এই সমস্ত পণ্য মানুষের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় এবং এদের বাজারমূল্যও চড়া। অর্থাৎ এই ব্যবসা শুরু করলে আপনি একাধিক উপায়ে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

উল্লেখ্য যে, কৃষি ও কৃষক কল্যাণ মন্ত্রক ‘শস্য উৎপাদনশীলতা বাড়াতে মৌমাছি পালনের উন্নয়ন’ নামে একটি কেন্দ্রীয় প্রকল্প চালু করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় খাতের উন্নয়ন, উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, প্রশিক্ষণ এবং জনগণের মধ্যে সচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়া অন্তর্ভুক্ত। ন্যাশনাল বি বোর্ড NABARD-এর সহযোগিতায় ভারতে মৌমাছি পালন ব্যবসার জন্য লাভজনক পরিকল্পনা করেছে। সরকারও এ খাতে নারীদের কর্মসংস্থানের জন্য প্রস্তুত। এর জন্য আপনি নিকটস্থ জাতীয় মৌমাছি বোর্ডের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। মৌমাছি পালনে সরকার ৮০ থেকে ৮৫ শতাংশ ভর্তুকিও প্রদান করে থাকে।

[ad_2]