Press "Enter" to skip to content

সহকর্মীকে ছাপাক এর টিকিট গিফট করার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রল হলেন TMC সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন


() জেএনইউ যাওয়ার পর থেকে বিতর্ক থামার নাম নিচ্ছেনা। দীপিকার সামনেই আজাদির স্লোগান দেওয়া হয়েছিল, আর এক শ্রেণীর মানুষ সেটা নিয়ে চরম ক্ষুব্ধ। ট্যুইটারে দীপিকার নতুন সিনেমা ছাপাক বয়কটের ডাকও দিয়েছে অনেকে। এমনকি অনেকেই ছাপাকের অগ্রিম বুকিংও ক্যান্সেল করে দিয়েছে। আরেকদিকে তৃণমূলের () রাজ্যসভার সাংসদ () দীপিকাকে সমর্থন করতে এক নতুন পন্থা অবলম্বন করেছেন। উনি ছাপাক মুভির টিকিটের ছবি শেয়ার করে ট্যুইট করেন যে, আমি টিকিট কিনে আমার সাথে কাজ করা এক যুগলকে গিফত করেছি। শুক্রবারের সকালে তাঁরা এই সিনেমা দেখবে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

এই ট্যুইটের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রল হলেন তৃণমূলের সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন। ট্যুইটারে অজিত নামের এক ব্যাক্তি লেখেন, আপনি ১৯০ টাকা কোন NGOকে দিয়েছেন, যারা অ্যাসিড আক্রান্তদের জন্য কাজ করে? না আপনি দেননি। আপনি প্রকৃত ভাবে অ্যাসিড আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াতে পারেন। আরেক ব্যাক্তি মজার চলে বলেন, প্রথমে টিকিটের দাম সস্তা করুন।

আরেক ব্যাক্তি ডেরেক ওব্রায়েনকে আক্রমণ করে বলেন, আপনি কি সিনেমার প্রোমোশনের কাজ শুরু করলেন? এভাবেই ট্যুইটারে ডেরেক ওব্রায়েনের ট্যুইটের পর একের পর এক আক্রমণ করা হয় ওনাকে।

https://platform.twitter.com/widgets.js

আপনাদের জানিয়ে রাখি, বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন মঙ্গলবার জওহর লাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের সমর্থনে গেছিলেন। আর সেখানে তিনি বাম ছাত্র নেত্রী ঐশী ঘোষের সাথে সাক্ষাৎ করেন। সেখানে প্রায় ১০ মিনিট পর্যন্ত ছিলেন, কিন্তু তিনি সেখানে একটিও বাক্য খরচ করেননি। আর এই নিয়ে বাম ছাত্রদের মধ্যে রোষও আছে। বাম নেত্রী ঐশী ঘোষ বলেছেন ওনার কিছু বলার দরকার ছিল। আরেকদিকে বাম ছাত্র নেতা কানহাইয়া কুমার দীপিকাকে কটাক্ষ করে বলেন, উনি এসেছিলেন? কই দেখলাম না তো!