Press "Enter" to skip to content

সাংসদ থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, এখন কাউন্সিলর হওয়ার রেসে নামবেন বাবুল সুপ্রিয়, জল্পনা তুঙ্গে

[ad_1]

কলকাতাঃ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব যাওয়ার পর রাজনীতিতে থেকে সন্ন্যাস নিয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo)। এরপর তিনি সন্ন্যাস কাটিয়ে তৃণমূলে (All India Trinamool Congress) যোগ দেন। এক সময় গুজব ছড়িয়েছিল যে, তৃণমূল ওনাকে রাজ্যসভার প্রার্থী করে দিল্লি পাঠাতে পারে। কিন্তু তা হয়নি। ওনার বদলে গোয়ার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে রাজ্যসভায় মনোনীত করে তৃণমূল। এরপর বাবুল সুপ্রিয়কে ট্রোল করা শুরু করে তাঁর পুরনো দল বিজেপি।

বিজেপির নেতা অনুপম হাজরা বাবুল সুপ্রিয়কে কটাক্ষ করে বলেছিলেন, প্রথম একাদশে খেলতে চাওয়া ছেলেটাকে মাঠের বাইরে বসিয়ে রাখল তৃণমূল। যদিও, বাবুলবাবু প্রাক্তন দলের নেতাদের কথায় কান দেননি। কিন্তু এখন শোনা যাচ্ছে যে, বাবুল সুপ্রিয়কে কলকাতা পুরসভার নির্বাচনে প্রার্থী করতে পারে তৃণমূল। আগামীকাল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়ার কথা। সেখানে বাবুলের নাম ঘোষণা করে বড়সড় চমক দিতে পারে ঘাসফুল নেতৃত্ব।

আগামী ১৯ ডিসেম্বর হতে চলেছে কলকাতা পুরসভার নির্বাচন। গণনার দিন এখনো চূড়ান্ত করা হয়নি কমিশনের তরফ থেকে। তবে, আজ থেকেই কলকাতায় নির্বাচনী আচরণবিধি লাগু হয়ে যাচ্ছে। কলকাতা পুরসভার নির্বাচনের জন্য আগামী কাল প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারে তৃণমূল। আর সেই তালিকায় বড়সড় চমক হিসেবে নাম থাকতে পারে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র।

জানা যাচ্ছে যে, কলকাতা পুরসভার ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বাবুল সুপ্রিয়কে প্রার্থী করা হতে পারে। ওই আসন মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত ছিল, সেখান থেকে কাউন্সিলর ছিলেন সাধনা বসু। এবার আসনটি জেনারেল হয়েছে। সেখান থেকেই বাবুল সুপ্রিয়র দাঁড়ানোর সম্ভাবনা প্রবল। তবে শুধুই কী কাউন্সিলর না অন্য কিছু? বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে কী ভাবছে তৃণমূল নেতৃত্ব সেটা এখনো বলা সম্ভব নয়। তবে, এও গুঞ্জন রটেছে যে, বাবুল সুপ্রিয়কে কলকাতার মেয়রও করা হতে পারে।

[ad_2]