Press "Enter" to skip to content

সিঙ্গাপুরে হিন্দুদের হত্যার ষড়যন্ত্র করা বাংলাদেশি গ্রেফতার, ছিল ISIS এর সাথে যোগ


নয়া দিল্লীঃ ে () হিন্দুদের হত্যার ষড়যন্ত্র কষা এক বাংলাদেশি () নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে জারি একটি বয়ানে বলা হয়েছে যে, অভিযুক্ত আহমেদ ফৈসল দেশে হিন্দুদের উপর হামলার ছক কষছিল। এছাড়াও, সে কাশ্মীরে জঙ্গি গতিবিধিতে যুক্ত হতে চাইছিল।

সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় অনুযায়ী, ফ্রান্স হামলার পর সুরক্ষার কারণে ৩৭ জনের তদন্ত করা হয়েছে, এরপর এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  বাংলাদেশি নাগরিকের পরিচয় ২৬ বছর বয়সী আহমেদ ফৈসল রুপে হয়েছে। অভ্যন্তরীণ সুরক্ষা আইনের আওতায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে।

সিঙ্গাপুরের তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, যেই সন্দেহভাজন ৩৭ জনের তদন্ত করা হয়েছিল তাঁদের মধ্যে ১৪ জন সিঙ্গাপুরের নাগরিক আর ২৩ জন বিদেশী নাগরিক। তাঁদের মধ্যে সাতজনকে এখনও ক্লিনচিট দেওয় হয়নি। বিদেশীরা বেশীরভাগ বাংলাদেশী বলে জানা যাচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় অনুযায়ী, ফৈসল জিজ্ঞাসাবাদে বলেছে যে, সে একটি চাকুও কিনেছিল। ওটা দিয়ে সে বাংলাদেশে থাকা হিন্দুদের নিশানা বানাতে চাইছিল। সে এও বলেছে যে, কাশ্মীরে ইসলামের শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়তে চায়।

মন্ত্রালয় জানায়, প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে যে ফৈসল কট্টরপন্থী আর ধর্মের নামে হিংসা ছড়ানোর মনোভাব পালন করে। ফৈসল ২০১৭ সালে সিঙ্গাপুরে নির্মাণ মজদুর হিসেবে কাজ শুরু করে। ২০১৮ সালে সে জঙ্গি সংগঠন এর সাথে সম্পর্কে আসে আর সিরিয়ায় ইসলামি খালিফা শাসন স্থাপন করার জন্য এর লক্ষ্যের প্রতি আকর্ষিত হয়। অভিযুক্ত এর সাথে সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সেখানে যেতে চাইছিল। তাঁর বক্তব্য হল, সে লড়াই করতে করতে মরে গেলে তাকে শহীদ বলা হবে।

বয়ানে বলা হয়েছে যে, ফৈসল ভুয়ো নামে অনেক কয়েকটি সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকাউন্ট বানিয়েছে আর হিংসা ছড়ানোর জন্য সেই অ্যাকাউন্ট গুলো ব্যবহার করত।