Press "Enter" to skip to content

“সিনেমার নামে এগুলো কি হচ্ছে”- পুষ্পা সিনেমা দেখেই রেগে উঠলেন পদ্মশ্রী নারসিমহা রাও

[ad_1]

আল্লু অর্জুন ও রেশমিকা মান্দান্নার পুস্পা ছবি টি দারুন জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। সাউথ সিনেমায় আল্লু অর্জুন খুবই জনপ্রিয় একজন অভিনেতা। এই ছবিতে আল্লু অর্জুনের অভিনয় সবার মন কেড়ে নিয়েছে। কিন্তূ কিছু মানুষ ছবিটির নিন্দা ও করেছে।তার মধ্যে একজন পদ্মশ্রী প্রাপ্ত নরসিংমহা রাও। নরসিংমহা রাও টাইমস নাও তে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, বিনোদনের নামে যা কিছু করা হচ্ছে তা ভুল। এই সিনেমাটি হিংসা কে ও হিংস্র মনোভাব কে প্রতিস্থাপন করে।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন এটি একটি বিপজ্জনক উদাহরণ তৈরি করছে। ছবিতে একজন চোরাকারবারীকে মহান হিসেবে দেখানো হয়েছে এবং তাকে নায়ক বলা হয়েছে। সে কাউকে মেরে বলে থাগ্গেদে লে এবং দর্শকরা তাকে হিরো বলে। আমি যদি কখনও কোনও পরিচালক বা অভিনেতার সাথে দেখা করি, আমি অবশ্যই তাদের ছবিটি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করব যে তাদের উদ্যেশ্য কি ছিল ছবিটি বানানো নিয়ে।

রাও প্রশ্ন তুলেছেন যে, একজন ভক্ত যদি অনুপ্রাণিত হয়ে ছবির নায়কের মতো অভিনয় শুরু করেন, তাহলে দায়িত্ব কে নেবে ছবির অভিনেতা না পরিচালক।
পুষ্পের নির্মাতা বা অভিনেতারা এখনও এই মন্তব্যে মন্তব্য করেননি।কিন্তু ভক্তদের কাছে এটা খুবই কষ্টের যে তাদের প্রিয় অভিনেতা কে এইভাবে নিশানা করা হয়েছে।ছবিটির সেকেন্ড পার্টের জন্য দর্শকেরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে আছে।

প্রসঙ্গত, এই সিনেমাটির হিন্দি সংস্করণ মুক্তির সপ্তম সপ্তাহে বক্স অফিসে 100 কোটি টাকা আয় করে সুকমার দ্বারা পরিচালিত এই সিনেমাটি ইতিহাস তৈরী করেছে। বক্স অফিসে মুক্তিপ্রাপক এটি প্রথম ছবি যার প্রথম দিনের আয় ছিলো তিন কোটি টাকা কিন্তু ধীরে ধীরে এটি 100 কোটি টাকার গণ্ডি পার করে। এই ছবিটির বিশেষত্ব হলো ও টি টি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইমে উপলব্ধ হওয়া সত্বেও দর্শক এটিকে পেক্ষাগৃহে দেখতে বেশি পছন্দ করছে। এর আগে এস এস রাজামৌলির ‘বাহুবলী দ্য বিগিনিং’ ছবিটিও হিন্দি সংস্করনে শুরু হয়ে 100 কোটির গণ্ডি পার করেছিল।

এই ছবিটিও প্রথমদিন পাঁচ কোটি পনেরো লাখ আয় দিয়ে শুরু করে ধীরে ধীরে 100 কোটির গণ্ডি ছাড়িয়ে যায়। বাহুবালীর হিন্দি সংস্করণটি মোট 117 কোটি টাকা আয় করেছিল। শুধু যে সবাই ছবিটিকেই পছন্দ করেছেন তাই নয় এই ছবির গানগুলোও খুব খ্যাতি অর্জন করেছে। বিপুল সংখ্যক মানুষ এই গানগুলোর উপর রীলস তৈরি করেছেন। সামান্থার ‘ওহ আন্তভা’ হোক বা রস্মিকার ‘সামি সামি’ হোক বা আল্লু অর্জুনের ‘শ্রীবল্লি’ গান হোক ; সব গুলোয় জনপ্রিয়তার তুঙ্গে।

[ad_2]