Press "Enter" to skip to content

সুখবর: সময়ের আগেই ভারত ছুঁয়ে ফেলবে মোদী সরকারের স্বপ্নের ৫ ট্রিলিয়ন ডলার ইকোনমি

ের অর্থনৈতিক অবস্থার বর্তমান হালচাল ঠিক কি? তা জানার সবচেয়ে বড় উপায় হল জিডিপি পরিসংখ্যান হিসাব রাখা। দেশের বুদ্ধিজীবীবর্গের তরফ দাবি করা হয়েছিল, করোনা আবহে গ্রোথ রেট মারাত্মকভাবে ধসে পড়েছে। কিন্তু এবার ভারতের পরিপ্রেক্ষিতে বেশ খানিকটা আশাব্যঞ্জক পেয়ে মুখ পুড়ল স্বঘোষিত বুদ্ধিজীবীদের। আসলে জিডিপির ক্ষেত্রে দারুণ কামব্যাক করছে ভারত।

সূত্র মারফত প্রাপ্ত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চলতি অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে দুর্দান্ত কামব্যাক করেছে ভারত। জিডিপি গ্রোথ রেট ২০.১%। উল্লেখ্য, গত বছর এই সময়কালে ভারতের জিডিপি গ্রোথ রেট দাঁড়িয়েছিল -২৩.৯%। সাধারণত জিডিপির পরিসংখ্যান দেখা প্রতিবছর অনুসারে। কিন্তু ভারতে ত্রৈমাসিক জিডিপি গ্রোথ রেট প্রকাশিত হয়। সে সূত্র ধরেই, এমন পরিসংখ্যান সামনে এসেছে।

জানিয়ে দি, ভারত ২০২৪ সালের মধ্যে ৫ ট্রিলিয়ন ইকোনমির টার্গেট নিয়েছে। অর্থনীতিবিদদের মতে, যদি এইভাবে চলতে থাকে তাহলে ২০২৪ সাল প্রবেশের কয়েকমাস আগেই ভারত ৫ ট্রিলিয়ন ডলার ইকোনমির টার্গেট পূর্ন করবে।

এর আগে, এসবিআইয়ের ইকোরাপ রিসার্চ রিপোর্ট দেখে অনুমান করা হয়েছিল, যে চলতি আর্থিক বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে দেশের জিডিপি ১৮.৫ শতাংশ হারে ি পেতে পারে।‌ কিন্তু আদতে দেখা গিয়েছে গ্রোথ রেট যা আশা করা হয়েছিল তার থেকেও কিছুটা বেশি। অর্থাৎ অর্থনীতির পরিস্থিতি দ্রুত গতিতে বদলাচ্ছে তা বলাই বাহুল্য। জিডিপি বলতে বোঝায় কোন দেশের সামগ্রিক উৎপাদিত পণ্য এবং পরিষেবার মোট বাজার মূল্য।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছর এই সময়ে প্রথম ত্রৈমাসিকে জিডিপি গ্রোথ রেট ২৩.৯% পতনের পরও পরবর্তী তিন মাসে পতনের ধারা ছিল অব্যাহত। সেসময় জিডিপি গ্রোথ রেটের পতন হয়েছিল ৭.৫%। পরবর্তী ত্রৈমাসিকে ০.৪% এবং শেষ ত্রৈমাসিকে ১.৬% পতনের কারণে বছর শেষভাগে ভারতের জিডিপি গ্রোথ রেট এসে দাঁড়িয়েছিল -৭.৩% এ। যা বর্তমানে খুব তাড়াতাড়ি কাম ব্যাক করছে।