Press "Enter" to skip to content

সুলতানপুরের নাম বদলে করা হবে রাম পুত্র কুশের নামে নামকরণ! উত্তরপ্রদেশে গুঞ্জন তুঙ্গে

ে বিভিন্ন জায়গার ঐতিহাসিক ঘটনাবলী ও ঐতিহ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। সম্প্রতি ‘মিঞাগঞ্জ’-এর নাম পরিবর্তন করে ‘মায়াগঞ্জ’ রাখার দাবি তুলেছে অনেকেই। এর আগে মির্জাপুরের নাম বদলে ‘বিন্ধ্য ধাম’ করার দাবিও উঠেছিল। এবার আওয়াজ উঠেছে, সুলতানপুরের নাম বদলে নতুন নাম দেওয়া হোক কুশভবনপুর। রামের পুত্র কুশের নামানুসারে ওই স্থানের নামকরণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ী সরকার।

কিন্তু এই দাবি আজকের নয়। ২০১৮ সালে উত্তরপ্রদেশের বিধায়ক দেবমণি দ্বিবেদী এই এক‌ই প্রস্তাব রেখেছিলেন। পরবর্তীকালে সুলতানপুরের জেলাশাসক ও ার ডিভিশনাল কমিশনারও রাজ্য সরকারের কাছে এক‌ই আবেদন করেছিলেন। এমনকী, ২০১৯ সালে উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল রাম নায়েক মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে (Yogi Adityanath) চিঠি লিখে নাম পরিবর্তনের আর্জি জানিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে ফৈজাবাদের নাম পরিবর্তন করে ও এলাহাবাদের নাম পরিবর্তন করে প্রয়াগরাজ করা হয়েছিল। এবার নাম পরিবর্তনের পথে সুলতানপুরও।

বৃহস্পতিবারই উন্নাও গ্রাম পঞ্চায়েত দাবি তুলেছিল, মিঞাগঞ্জের নাম অতি দ্রুত পরিবর্তন করা হোক। বদলে নয়া নামকরণ করা হোক মায়াগঞ্জ। এ বিষয়ে উন্নাওয়ের জেলাশাসক রবীন্দ্র কুমার বলেছেন, ইতিমধ্যে অনেকেই নাম বদলের সুপারিশ করেছে। গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে ‘মিঞাগঞ্জ’-এর নাম পরিবর্তন করে ‘মায়াগঞ্জ’ রাখার দাবি করা হয়েছে। গত মাসেই নাম বদলের জন্য গ্রাম পঞ্চায়েতে চিঠি লিখে জানিয়েছিলেন স্থানীয় বিধায়ক ্বা লাল দিবাকর। তারপরই গ্রাম পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

তবে শুধুমাত্র মিঞাগঞ্জ‌ই নয়, । রাজ্যের মন্ত্রী রামশংকর সিং প্যাটেল দাবি তুলেছেন। একটি ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরের নাম বদলে ‘বিন্ধ্য ধাম’ করা হোক। এর সঙ্গে সাধারণ মানুষের ভাবাবেগ জড়িয়ে থাকার কথাও বলেছেন উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী।