Press "Enter" to skip to content

হায়রে রাজনীতি! করোনায় আক্রান্ত হয়ে শয়ে শয়ে মানুষের জীবন বিপন্ন করে AAP বিধায়ক গেলেন হাথরসে

নয়া দিল্লীঃদিল্লীর কোন্ডলি বিধানসভা আসন থেকে আম আদমি পার্টির () বিধায়ক কুলদীপ কুমারের (Kuldeep Kumar) বড় অবহেলা সামনে এসেছে। ওনার এই অবহেলার কারণে ওনেক মানুষের জীবন বিপদে পড়তে পারে। আজ বিধায়কের দুটি ট্যুইট খুব হচ্ছে, যেখানে একটি ট্যুইটে তিনি নিজেকে করোনা আক্রান্ত বলেছিলেন, আরেকটি ট্যুইটে তিনি লেখেন নির্যাতিতার পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ করতে হাথরসে পৌঁছেছি।

AAP কুলদীপ কুমার ২৯ সেপ্টেম্বর ট্যুইট করে লেখেন, ‘বিগত দুইদিন ধরে আমি হালকা জ্বরে ভুগছি। আর এই কারণে আমি আজ করোনার টেস্ট করা। আমার করোনার টেস্ট রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এরপর আমি নিজেকে বাড়িতে আইসোলেট করেছি। এর সাথে সাথে বিগত দুই তিন দিনে যারা যারা আমার সংস্পর্শে এসেছেন, তাঁরা নিজেদের টেস্ট করিয়ে নিন।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

এরপর তিনি গতকাল একটি ট্যুইট করে লেখেন, ‘প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি পাওয়ার পর হাথরসে নির্যাতিতা মনীষা বোনের পরিজনের সাথে দেখা করতে পৌঁছেছি।” এরপর তিনি পাঁচই অক্টোবর মানে আজকের দিনে আরেকটি ট্যুইট করে লেখেন, ‘এখনই হাথরসের পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ করে ফিরলাম। পরিবারের মানুষের মধ্যে ভয় আর আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। এটি গণতন্ত্র আর সংবিধানের হত্যা। উত্তর প্রদেশে যোগী রাজে আইন না জঙ্গল রাজ চলছে।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

AAP বিধায়কের পরপর দুটি ট্যুইটের পর প্রশ্ন উঠছে যে, তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে কীভাবে লোক সমক্ষে চলে গেলেন। জানিয়ে দিই, করোনার আক্রান্ত হওয়ার পর ১৫ দিন ে থাকার নিয়ম আছে। এরপর সুস্থ হলে জন সমক্ষে আসা সম্ভব। আর তিনি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার শেয়ার করলেও, সুস্থ হয়ে ওঠার কোনও কথা জানান নি। এমনকি উনি করোনা আক্রান্ত হওয়ার ৫ থেকে ছয়দিনের মাথায় জন সমক্ষে যান।

https://platform.twitter.com/widgets.js