Press "Enter" to skip to content

হিন্দুদের জন্য সুখবর! পাঁচই আগস্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত ধরে শুরু হচ্ছে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী () ৫ই আগস্ট অযোধ্যায় () শ্রীরাম জন্মভূমি পূজন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। সুত্র থেকে জানা গিয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রী সকাল ১১ টা নাগাদ তিনি অযোধ্যায় পৌঁছাবেন। এই ভূমি পূজন ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত চলতে পারে। এই ভূমি পূজনের জন্য কাশি থেকে বিশিষ্ট পুরোহিতদের ডাকা হবে। সুত্র অনুযায়ী, সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ঃ১০ মিনিট পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী অযোধ্যায় থাকবেন। ৫ই আগস্ট সকালে ৮ টায় ভূমি পূজনের অনুষ্ঠান শুরু হবে। রাম মন্দির ট্রাস্টের তরফ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ পাঠানো হয়েছে।

রাম মন্দির নির্মাণের জন্য গোটা দেশ কয়েক দশক ধরে অপেক্ষা করছিল। আর এবার সেই শুভক্ষণ চলে এসেছে। রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ভূমি পূজনের তারিখ নির্ধারিত হয়ে গেছে। আগামী মাসের ৫ই আগস্ট রাম মন্দিরের জন্য ভূমি পূজনের শুভ সময় নির্ধারিত করা হয়েছে। রাম মন্দিরের স্বপ্নকে সফল করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাতেই ভূমি পুজন করানো হবে।

গতকাল রাম মন্দির ট্রাস্টের বৈঠকে নির্ধারিত হয় যে, রাম মন্দির উচ্চতা আরও বাড়ানো হবে। প্রথমে মন্দিরের উচ্চতা ১২৮ ফুট ছিল, এটা এখন বাড়িয়ে ১৬১ ফুট করা হবে। এছাড়াও মন্দিরের গর্ভগৃহের আশেপাশে তিনটির জায়গায় পাঁচটি গুম্বজ বানানো হবে। ট্রাস্টের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, রাম মন্দির নির্মাণকার্য ৩ বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ করা হবে। ২০২৩ পর্যন্ত অযোধ্যার রাম মন্দির ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হবে। যদিও এখনো পর্যন্ত রাম মন্দির বানানোর জন্য সম্পূর্ণ পাথর যোগাড় হয়নি। আর এই পাথর যোগাড় করতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ট্রাস্টের সদস্য কামেশ্বর চৌপাল গতকালই জানিয়েছিলেন যে, রাম মন্দির ডিজাইনেও বদল আনা হবে। ট্রাস্টের বৈঠকে নির্ণয় নেওয়া হয় যে, প্রথমে মন্দিরের জন্য তিনটি পিলার বানানো হয়েছিল, কিন্তু এবার পাঁচটি পিলার হবে। মন্দিরের মডেল বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নির্ধারিত মডেলই থাকবে। কিন্তু উচ্চতা, দৈর্ঘতা বাড়ানো হবে।