Press "Enter" to skip to content

হিন্দুরা তালিবান! বিতর্কিত মন্তব্য ফের শিরোনামে বাম-কংগ্রেস জোটের প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য


 ধর্মনিরপেক্ষতার আড়ালে বারবার হিন্দুদের উপর আক্রমণ করে (CPIM)। এই অভি বরাবরই তুলে এসেছে বিজেপি (BJP)। আরও একবার বিজেপির (BJP) সেই অভিযোগ সত্য প্রমাণ করে শিরোনামে উঠে এলেন রাজ্যসভার ে বাম-কংগ্রেস জোটের প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য (Bikashranjan Bhattacharyya)।

এর আগেও তিনি ধর্মতলায় ধর্মনিরপেক্ষতার নামে প্রকাশ্যে গরুর মাংস খেয়ে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। এবার হিন্দু আর হিন্দুদের বলে আখ্যা দিয়ে সেই ট্র্যাডিশন বজায় রাখলেন তিনি। ধর্মতলায় প্রকাশ্যে গরু খাওয়ার পর বিজেপির তীব্র কটাক্ষ শুনতে হয়েছিল ওনাকে। কিন্তু নিজের রাজনৈতিক চরিতার্থ সফল করার জন্য উনি সেসবে পাত্তা দেননি।

বিজেপি বারবার অভিযোগ করে যে, সিপিএম ধর্মনিরপেক্ষতার নামে মুসলিমদের সমর্থন করে বুঝিয়ে দেয় যে তাঁরা কতটা ধর্মনিরপেক্ষ। এমনকি তাঁরা গণতন্ত্র আর বাক স্বাধীনতার নামে পাকিস্তানকে সমর্থন এবং দেশ ভাগও করতে চায় বলে অভিযোগ তুলেছিল বিজেপি। এমনকি বাম নেতা, ছাত্র নেতাদের মধ্যে বারবার , আজাদ কেরল, মনিপুর এর কথা উঠেও এসেছিল।

বাম কংগ্রেস জোট প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য করোনাভাইরাস নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে সরাসরি হিন্দুদের দিকে আঙুল তুলে বসেন। তিনি ে একটি পোস্ট করে লেখেন, ‘হিন্দুতালিবানরা দাবী করেছিল , তেত্রিশকোটি দেবতার দেশ ভারত সেখানে করোনা ভাইরাস ঢুকতে পারবেনা |এখন ভয়ে দেবতারাই দরজা বন্ধ করছে | ওরা গোমুত্রগোবর খেয়ে বাঁচবার কথা বলছে | অসুস্হ হলে ওদের খাটালে নয় হাসপাতালে নিয়ে যাবেন| ওরা মানুষ ওদের বাঁচাবার দায় বিজ্ঞানসম্মত মানুষদের |”  বিকাশরঞ্জনের এই মন্তব্যের পর রাজ্য রাজনীতির পারদ যে আবার চড়তে চলেছে সেটা বলাই বাহুল্য।