Press "Enter" to skip to content

“হিন্দু আতঙ্কবাদী”- শব্দের উৎপত্তির জন্য হিন্দুরা কি কংগ্রেসকে ক্ষমা করবেন!!

দেশে হিন্দুবিরোধী রাজনীতিবিদ ও হিন্দু বিরোধী সাংবাদিকদের তালিকা খুবই লম্বা। আপনাদের জানা দরকার এই হিন্দুবিদ্বেষীরা সেখানেই বেশি যেখানে হিন্দুরা সংখ্যাগরিষ্ট। যেখানে হিন্দুসংখ্যা বেশি সেখানেই হিন্দুবিদ্বেষী বেশি সংখ্যায় বর্তমান। অন্যদিকে যেখানে হিন্দু সংখ্যালঘু অর্থাৎ হিন্দুদের সংখ্যা যেখানে কম সেখানে সেখানে দেশবিভাজনকারী জঙ্গিদের সংখ্যা বেশি। উদাহরণ সরূপ কাশ্মীর যখন হিন্দুসংখ্যা গরিষ্ঠ ছিল তখন সেখানে হিন্দুবিদ্বেষীদের সংখ্যাও বেশি ছিল কিন্তু বর্তমানে কাশ্মীর প্রায় হিন্দু শুন্য। তাই সেখানে হিন্দু বিদ্বেষী কম কিন্তু দেশবিভাজনকারী জঙ্গিদের সংখ্যা বেশি যারা চাই কাশ্মীরকে ভারত থেকে আলাদা করতে।

তবে বিষয়গুলির সৃষ্টি কয়েক বছরে হয়নি এগুলোর স্বাধীনতার পর গান্ধী/নেহেরু পরিবারের হাতে শাসন যাওয়ার পর থেকে হয়ে আসছে যারা এক সম্প্রদায়কে তোষণ করে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক ধরে রেখেছিল। কংগ্রেস গান্ধীজির হত্যাকারী নাথুরাম গডসে RSS এর লোক বলে দাবি করেছিল এবং আরএসএসকে হিন্দুজঙ্গি সংগঠন বলে আখ্যা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। পরে আলদালতে প্রমাণিত হয় RSS গান্ধী হত্যার সাথে কোনোভাবেই জড়িত নয় এবং গডসে RSS এর কর্মী নন।

পরবর্তীকালে হায়দ্রাবাদের মক্কা মদিনা বোমব্লাস্টে আরএসএস এর কার্যকর্তা স্বামী অসীমানন্দকে গ্রেপ্তার করে কংগ্রেস দাবি করে দেশে হিন্দু আতংকবাদী সংগঠন রয়েছে। কিন্তু ১০ বছর ধরে আদালতে মামলা চলার পর প্রমাণিত হয় স্বামী অসীমানন্দ নির্দোষ।

পরবর্তীকালে কংগ্রেস হিন্দুদের রামসেতু ভাঙার চেষ্টা করেছিল যা শুধুমাত্র সুব্রামানিয়াম স্বামীর জন্য রক্ষা পায়। কংগ্রেস চেয়েছিল হিন্দু সংস্কৃতি ধ্বংস করে নিজেদের সার্থসিদ্ধি করা।

মুম্বাই CST জঙ্গি হামলায় যারা ধরা পড়েছিল তারা কেউই হিন্দু ছিল না কিন্তু সেইসময় কংগ্রেস ও কিছু মিডিয়া দাবি করেছিল এই জঙ্গিরা সকলে হিন্দু জঙ্গি। পরে মূলঅভিযুক্ত আজমলকে ধরা হলে সব সত্য বেরিয়ে আসে। জানা যায় জিহাদিরা হিন্দুদের মতো করে নিজেদের কপালে তিলক লাগিয়েছিল এবং হাতে লাল সুতো বেঁধে রেখেছিল যাতে করে হিন্দু সমাজের বদনাম করা যায়।

আসলে কংগ্রেস বহুদিন থেকে হিন্দুসমাজকে বদনাম করার চেষ্টা করেছে এবং হিন্দুদের আতংকবাদী তকমা দেওয়ার চেষ্টা করেছে। কংগ্রেস তোষণের রাজনীতি করতে গিয়ে এতটাই নিচে নেমে গেছে যে তারা শুধু হিন্দুসমাজের বদনাম করার জন্য নোংরা খেলায় নেমে পড়েছে।

Source- 360Hinduism
Quora.com
Financial Express

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.