Press "Enter" to skip to content

হিন্দু আবেগের কথা মাথায় রেখে অসমে দীপাবলিতে বাজি পোড়ানোর অনুমতি, সিদ্ধান্ত হিমন্ত বিশ্ব শর্মার

[ad_1]

গুয়াহাটিঃ অসমে (Assam) দীপাবলির অবসরে বাজি পোড়ানোতে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা (Himanta Biswa Sarma) জানিয়েছেন, ওই নির্দেশ সরকারের সঙ্গে পরামর্শ না করেই জারি করা হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, ‘অসম পলিউশন কন্ট্রোল বোর্ড নিজেই পদক্ষেপ নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা না করে বাজি বিক্রিতে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। আমরা এখন বিষয়টা দেখছি।”

https://platform.twitter.com/widgets.js

মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, আমরা এই বিষয়ে সমীক্ষা করছি আর এটা পাবলিক সেন্টিমেন্টের কথা মাথা রেখে করা হবে। বলে দিই, অসম পলিউশন কন্ট্রোল বোর্ড গ্রিন ক্যাকার্স ছাড়া সমস্ত রকমের বাজি বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। তাঁরা জানিয়েছিল, ন্যশানাল গ্রিন ট্রিবিউনালের নিয়ম অনুসারে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

আদেশে বলা হয়েছিল যে, আগামী বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে। এর মানে এই ছিল যে, দীপাবলিতে অসমে বাজি পোড়ানো সম্পূর্ণ ভাবে নিষিদ্ধ হয়ে গিয়েছিল। বায়ু দূষণ নিয়ন্ত্রণের কথা বলে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। PCB-র চেয়ারম্যান অরুক কুমার মিশ্রা বলেন, সমস্ত এসপি আর ডেপুটি কমিশনারকে চিঠি লিখে নির্দেশ পালন করার কথা বলা হয়েছিল।

পাশাপাশি রাজ্যের পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল যে, তাঁরা যেন বাজি আমদানিতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করে। অবৈধ ভাবে বাজি বিক্রি করা ব্যবসায়ীদের শাস্তি দেওয়ারও নিদান দেওয়া হয়েছিল। বোর্ড বলেছিল, আমরা শুধু পরামর্শ আর নির্দেশিকা জারি করতে পারি, পুলিশ-প্রশাসনকে দায়িত্ব থাকবে বাজি পোড়ানো ব্যক্তিদের গ্রেফতার করা। এছাড়াও গ্রিন ক্র্যাকার্স ব্যবহার করার জন্য দীপাবলির দিনে ২ ঘণ্টা সময় দিয়েছিল বোর্ড।

[ad_2]